ঢাকা, শুক্রবার, ২৪শে সেপ্টেম্বর ২০২১ ইং | ৯ই আশ্বিন, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

টাঙ্গাইলে বিয়ের প্রলোভনে বিত্তশালী নারীদের অর্থ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ!

আ: রশিদ তালুকদার, টাঙ্গাইল প্রতিনিধি: টাঙ্গাইলের মধুপুর উপজেলার মহিষমারা ইউপি সদস্য কাজী জয়নাল হাজারীর বিরুদ্ধে বিয়ের প্রলোভনে একাধিক বিত্তশালী নারীর অর্থ-সম্পদ হাতিয়ে নেওয়ার অভিযোগ ওঠেছে।

অভিযোগে জানা যায়, মধুপুরের জয়নাতলী গ্রামের কাজী সোবহানের ছেলে কাজী জয়নাল হাজারী গার্মেন্টসে চাকুরি করা কালে সাভারে এক সহকর্মীকে বিয়ে করেন। বিয়ের পর ওই নারীর অর্থায়নে তিনি মালয়েশিয়ায় পাড়ি জমান। মালয়েশিয়া থেকে দেশে ফিরে স্ত্রীর কাছে না গিয়ে বরিশালে তার এক বন্ধুর বোনকে বিয়ে করেন। বরিশালের ওই নারীর অর্থে ঢাকায় বসবাস শুরু করেন। ঢাকায় থাকাকালীন তিনি আরও এক বিত্তশালী নারীকে প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ে করেন। পরে তার অর্থ-সম্পদ হাতিয়ে নিয়ে বরিশালের স্ত্রীকে নিয়ে গ্রামের বাড়ি মধুপুরের জয়নাতলীতে বসবাস শুরু করেন। এরই মধ্যে ঘাটাইলের একটি স্কুলের বিধবা শিক্ষিকার সাথে মোবাইল ফোনে প্রতারণামূলকভাবে ইতালি প্রবাসী মেহেদী হাসান মিলন নাম ধারণ করে প্রেমের ফাঁদে ফেলেন। এক পর্যায়ে ওই বিধবা নারীকে তার দুই সন্তান সহ ভুয়া কাবিননামায় সাক্ষর নিয়ে বিয়ে করে। পরে দুই সন্তান সহ ওই নারীকে ইতালি নেওয়ার কথা বলে বাড়ি বিক্রির ১৬ লাখ টাকা, প্রায় ৬ ভরি ওজনের স্বর্ণালঙ্কার ও তিন জনের পাসপোর্ট কৌশলে হাতিয়ে নিয়ে সটকে পড়ে।

সরেজমিনে মধুপুরের জয়নাতলী গ্রামে গেলে স্থানীয়রা এক বাক্যে কাজী জয়নাল আবেদীন বার বার বিয়ে করায় এলাকাবাসীর কাছে ‘হাজারী’ উপাধি পেয়ে জয়নাল হাজারী হয়েছে বলে জানায়। সুদর্শন হওয়ায় বিত্তশালী নারীদের প্রেম ও বিয়ের প্রলোভনে অর্থ-সম্পদ হাতিয়ে নেওয়া তার এক প্রকার স্বভাব হয়ে দাঁড়িয়েছে বলেও এলাকাবাসী মনে করে।

অভিযুক্ত ইউপি সদস্য কাজী জয়নাল হাজারী জানান, তার বিরুদ্ধে আনা সকল অভিযোগ মিথ্যা। স্থানীয় পর্যায়ে তার নির্বাচনী প্রতিপক্ষের লোকজন এসব কথা বলে সমাজে তাকে হেয় করার অপচেষ্টা করছে। তিনি ৪-৫টি বিয়ে করেছেন এটা সত্য, তবে ১০০-১৫০ বিয়ে করার কথা আদৌ সত্য নয়। ইউপি সদস্য হিসেবে গ্রাম্য বিচার-সালিশে তিনি সত্য কথা বলেন বিধায় এলাকায় তার কিছু শত্রুও সৃষ্টি হয়েছে।

মহিষমারা ইউপি চেয়ারম্যান মোতালেব হোসেন জানান, ইউনিয়নের ৩ নং ওয়ার্ডের সদস্য কাজী জয়নাল হাজারী ২০-২৫টি বিয়ে করেছে বলে এলাকায় জনশ্রুতি রয়েছে। তবে ইউপি সদস্য নির্বাচিত হওয়ার পর তিনি নতুন কোন বিয়ে করেন নি। বিয়ে করে অর্থ-সম্পদ হাতিয়ে নেওয়ার বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না।

You must be Logged in to post comment.

ফুলবাড়ীতে ৯মাস থেকে উপবৃত্তির টাকা পায়নি প্রাথমিকের সাড়ে ১৭০০ শিক্ষার্থী।     |     ঝিনাইদহের মোবারকগঞ্জ চিনিকল রক্ষায় প্রশংসনীয় উদ্যোগ     |     গাইবান্ধা জেলা যুবলীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত     |     পলাশবাড়ীতে ফেনসিডিলসহ ২ মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার     |     গড়েয়ায় জমকালো আয়োজনে  টাইগার ক্লাব আয়োজিত ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন     |     ঝিনাইদহে বজ্রপাত প্রতিরোধে তালবীজ রোপণ     |     মাদারীপুরের কালকিনিতে মোটরসাইকেল চাঁপায় শিশু নিহত     |     রূপসায়  অপরাজিতা নারীর ক্ষমতায়ন বিষয়ক নাগরিক সচেতনতা সভা অনুষ্ঠিত     |     মেহেরপুরের গাংনীর বিএডিসি অফিস এখন দুর্নীতির আখড়া ভূ-গর্ভস্থ সেচ প্রকল্পের কাজ দায়সারাভাবে করার অভিযোগ     |     পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলায় ধান ক্ষেত থেকে নবজাতক উদ্ধার     |