ঢাকা, শনিবার, ৬ই মার্চ ২০২১ ইং | ২২শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

ঠাকুরগাঁওয়ে প্রকল্পের সরকারি  চাল আত্মসাতের অভিযোগ দুর্নীতির দায় থেকে অব্যাহতি দিতে দুদকের সুপারিশ গ্রহন করেনি আদালত।

মোঃ মজিবর রহমান শেখ ঠাকুরগাঁও জেলা প্রতিনিধি,,ঠাকুরগাঁও জেলার  সদর উপজেলার রুহিয়া থানার অন্তর্গত ২১ নং ঢোলার হাট ইউনিয়নের বিভিন্ন ভূয়া প্রকল্প দেখিয়ে জি,আর প্রকল্পের চাল আত্বসাতের অভিযোগে অভিযুক্ত একজন ইউপি চেয়ারম্যান ও ৫ জন সরকারি কর্মকর্তাকে অব্যাহতি দিতে দুর্নীতি দমন কমিশনের সুপারিশ এফ,আরটি গ্রহণ করেনি আদালত। সোমবার শুনানীর দিন দুদকের প্রতিবেদন ও সুপারিশ গ্রহন না করে দুর্নীতি দমন কমিশনের একজন সিনিয়র কর্মকর্তাকে দিয়ে পুনরায় তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করতে নির্দেশ দিয়েছেন ঠাকুরগাঁও জেলা ও দায়রা জজ মামুনুর রশিদ। জি আর প্রকল্পের চাল আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়ার পর দুর্নীতি দমন কমিশন উক্ত ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সীমান্ত কুমার বর্মন, ঠাকুরগাঁও  জেলার সদর উপজেলার প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা গোলাম কিবরিয়া , ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক বিপ্লব কুমার সিংহ রায়, ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলার   গড়েয়াহাট খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাইদুর রহমান, ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলার খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা শাহাবুদ্দিন আহম্মদ এবং ঠাকুরগাঁও জেলার সদর উপজেলার শিবগঞ্জ খাদ্য গুদামের ভারপ্রাপ্ত র্কমকর্তা এস এম গোলাম মোস্তফার বিরুদ্ধে দন্ড বিধির ৪২০/৪৬৭/৪৬৬/৪৭১/৪০৯/১০৯ ধারা বলে এভং ১৯৪৭ সালের দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনের ৫(২) ধারায় মামলা রুজু করে। তদন্ত শেষে আসামিদের বিরুদ্ধে সরকারি চাল আত্মসাতের বিষয়টি প্রমানিত হওয়ার পরেও অনুকম্পা দেখিয়ে প্রতিবেদন উল্লেখ করা হয়েছে “যেহেতু ৫ জন আসামি সরকারি বিভিন্ন পর্যায়ের কর্মকর্তা ও ১ জন ইউপি চেয়ারম্যান বিধায় এত সল্প টাকা আত্মসাৎ মামলা রুজুর পর আসামিগণকে আটক ও দীর্ঘদিন হাজতবাসের কারনে আসামি এক প্রকার  শাস্তিভোগ করিয়াছেন” । হাজতবাস এবং আত্মসাৎকৃত ২,৩৪,৬০৮/১০ টাকা সরকারি কোষাগারে জমা প্রদান করায় আসামিগণ কে এই মামলার দায় হতে অব্যাহতি প্রদানের সুপারিশ কার হয় প্রতিবেদনে। পরে এ বিষয়ে এলাকাবাসীর পক্ষে ওসমান আলী, নাসিরুল ইসলাম, যষ্টি কুমার,সুদেব রায়( শিক্ষক),নিরঞ্জন রায়(অধক্ষ্য), মো: হাসান(শিক্ষক) এবং উদয় কুমার রায় সহ কয়েকজন ব্যক্তি ঠাকুরগাঁও জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারন সম্পাদক অ্যাড.এনতাজুল হক কে বিষয়টি জানান, এবং আসামিরা যেন মামলা থেকে অব্যহতি না পায় সে বিষয়ে বিজ্ঞ আদালতের দৃষ্টিতে আনার অনুরোধ করেন। এর প্রেক্ষিতে অ্যাড.এনতাজুল হক বিজ্ঞ আদালতের দৃষ্টি আকর্ষন করেন এবং জানান, সরকারি চাল আত্মসাতের অভিযোগ প্রমানিত হওয়ার পর দুদকের তদন্তকারী কর্মকর্তা দোষী ব্যক্তিদের মামলার দায় হতে প্রতিবেদনে সুপারিশ করেছেন বিজ্ঞ আদালতের কাছে কাগজ পত্র উপস্থাপন করেন। মাননীয় ঠাকুরগাঁও  জেলা ও দায়রা জজ দুদকের উক্ত প্রতিবেদন দেখে ক্ষোভ ও বিস্ময় প্রকাশ করেন এবং দুদকের প্রতিবেদন ও সুপারিশ গ্রহন না করে  একজন সিনিয়র কর্মকর্তাকে দিয়ে পুনরায় তদন্ত করে প্রতিবেদন দাখিল করতে নির্দেশ প্রদান করেন।

You must be Logged in to post comment.

গাংনীর ধানখোলা বাজার কমিটির নির্বাচন সম্পন্ন ফারুক সভাপতি টোকন সেক্রেটারী     |     সাংবাদিক নির্যাতনের প্রতিবাদে ও আসামীদের গ্রেফতারের দাবীতে ঝিনাইদহে মানববন্ধন     |     গাংনীতে গম চাষে ফলন বিপর্যয়ের আশঙ্কা। ব্লাষ্ট ভাইরাসে গম ক্ষেত আক্রান্ত     |     সাতক্ষীরায় মাটির ভিতর থেকে পাওয়া গেলো চরশো বছরের পুরানো মুর্তি     |     ঝিনাইদহে স্বেচ্ছাসেবক দলের বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ     |     ঝিকরগাছা উপজেলা চেয়ারম্যানের মায়ের ইন্তেকাল : শোকাহত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন     |     বিচারের দাবিতে জেলা প্রশাসকের কাছে লিখিত অভিযোগ মেহেরপুরে কাষ্টমস কর্মকর্তা তপন চন্দ্র দে’র বিরুদ্ধে অর্থ বাণিজ্য ও হয়রানির অভিযোগ     |     পঞ্চগড়ে এসে শেষ হলো হানিফ বাংলাদেশীর ‘মার্চ ফর ডেমোক্রেসি’     |     বীরগঞ্জে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের পাশে পরিবেশের ছাড়পত্র ও অনুমদন বিহিন অবৈধ ইটভাটা চলছে ম্যনেজ করে, নিরব প্রশাসন     |     গাইবান্ধায় কৃষি ট্রেনিং সেন্টার নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেন কৃষকলীগ সাধারণ সম্পাদক এ্যাড.স্মৃতি এমপি     |