ঢাকা, রবিবার, ২৯শে নভেম্বর ২০২০ ইং | ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Breaking News

” তেঁতুলিয়ার রৌশনপুরে নারী ও কিশোরীদের মাঝে বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন বিতরণ কর্মসূচি ” 

পঞ্চগড় প্রতিনিধি: কিশোরী ও নারীদের পিরিয়ড বা ঋতুস্রাব বিষয়ে সচেতনতা তৈরিতে বিনামূল্যে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলার রওশনপুর ইউনিয়নের কিশোরী ও নারীদের মাঝে বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন বিতরণ করা হয়েছে ।

শুক্রবার (৩০ অক্টোবর) বিকেলে পঞ্চগড় ভিত্তিক স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘প্রাণোচ্ছ্বাস-সংযোগ’  এসব স্যানিটারি ন্যাপকিন কিশোরী ও নারীদের মাঝে বিতরণ করে।
স্যানিটারি ন্যাপকিন বিতরণ অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন প্রধান অতিথি হিসেবে শালবাহান উচ্চ বিদ্যালয়ের অবসর প্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক জনাব মোঃইয়াকুব আলী , বিশেষ অতিথি হিসেবে মন্ডলপাড়া সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক জনাব শিরিন সুলতানা ।সভাপতিত্ব করেন রওশনপুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো:মামুনুর রশীদ ।আরো উপস্থিত ছিলেন বিশিষ্ট চিকিৎসক ও প্রাণোচ্ছ্বাসের নারী ও শিশু উইং এর সভাপতি জনাব ডাঃজান্নাতুন ফেরদৌস (নীতু) এবং  প্রাণোচ্ছ্বাসের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ এবং নারী ও শিশু উইংয়ের সকল সদস্য বৃন্দ।এসময় প্রাণোচ্ছ্বাসের চিকিৎসক এবং মেডিক্যালে অধ্যয়নরত শিক্ষার্থীদের পক্ষ থেকে ঋতুকালীন প্রজনন স্বাস্থ্য, ব্যক্তিগত স্বাস্থ্যবিধি নিয়ে পরামর্শ প্রদান ও হেলথ ক্যাম্প পরিচালনা করা হয় এবং ট্যাবু বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করা হয় ।
প্রধান অতিথি  জনাব মো:ইয়াকুব আলী বলেন,প্রাণোচ্ছ্বাসের উদ্যোগে নারী ও কিশোরীদের প্রজনন স্বাস্থ্য সচেতনতায় স্যানিটারি ন্যাপকিন বিতরণ কার্যক্রম অনেক প্রশংসনীয় ।এমন একটা মহৎ উদ্যোগের জন্যে প্রাণোচ্ছ্বাস কে অনেক ধন্যবাদ।
প্রাণোচ্ছ্বাসের নারী ও শিশু উইং এর সভাপতি  ডাঃজান্নাতুন ফেরদৌস (নীতু) বলেন, কিশোরী ও নারীদের পিরিয়ড বা ঋতুস্রাব বিষয়টি গ্রামাঞ্চলের  ‘ট্যাবু’ হিসেবে দেখা হয় ।কিশোরী বা নারীরা এ বিষয়ে কথা বলতে চান না।এর প্রেক্ষিতে অনেক নারীই স্যানিটারি ন্যাপকিন ব্যবহার যে কতোটা স্বাস্থ্যকর তা জানেন না।বাংলাদেশের প্রায় ৮৬ ভাগ নারী পিরিয়ডের সময় পুরাতন কাপড় ব্যবহার করে।পুরাতন কাপড় বা ন্যাকরা ব্যবহারে অনেক নারীই জরায়ুর অনেক মারাত্মক রোগে ভুগে থাকেন যেমন
#মূত্রথলীতে ইনফেকশন,
#মূত্রনালীতে  ইনফেকশন,
#ফাংগাল ইনফেকশন,
#প্রজনন তন্ত্রে ইনফেকশন,
#সেপসিস,
#প্রজনন  টিউব বন্ধ হয়ে যাওয়া ,
#বন্ধ্যাত্ব,
#জরায়ু মুখের ক্যানসার ইত্যাদি ভয়ংকর ভয়ংকর রোগ ওঁত পেতে থাকে।তাই স্যানিটারি ন্যাপকিন বিষয়ে সচেতনতা তৈরি করা জরুরি ।পাশাপাশি অল্প দামে স্যানিটারি ন্যাপকিন প্রাপ্তির বিষয়টিও আমাদের নিশ্চিত করতে হবে।
প্রাণোচ্ছ্বাসের নারী ও শিশু উইং এর সদস্য অন্তরীণ জুলফিকার ( তরী) বলেন, গ্রামাঞ্চলে কিশোরী ও নারীদের প্রজনন স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিষয়ে সচেতনতা বেশ কম।তাই আমরা স্যানিটারি ন্যাপকিন বিতরণ ও হেলথ ক্যাম্প পরিচালনার মধ্যে দিয়ে এই সচেতনতা বাড়াতে চাই।
‘প্রাণোচ্ছ্বাস’ সম্পর্কে জানতে চাওয়া হলে সংগঠনটির কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের বর্তমান সভাপতি মোঃ দাইয়ান নাফিস প্রধান বলেন, প্রাণোচ্ছ্বাস ” একটি পঞ্চগড় ভিত্তিক ব্যতিক্রমী সমাজসেবামূলক সংগঠন ।যার শ্লোগান হচ্ছে, ” আত্মসেবা নয়, মানবসেবা ”
 এই সংগঠনটি প্রতিষ্ঠিত হয় ২০০৯ সালের ২২ সেপ্টেম্বর এবং এটির প্রতিষ্ঠাতা ডাঃমাছউদ আলম,সহঃ রেজিস্ট্রার, ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল, ঢাকা।
প্রাণোচ্ছ্বাস একটি স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন হিসেবে পঞ্চগড় জেলার মাটি ও মানুষের জন্য নিঃস্বার্থভাবে কাজ করে যাচ্ছে ।পঞ্চগড়ের প্রায় ১০০০ জন নানান পেশার নানান বয়সের মেধাবীদের নিয়ে যেমন চিকিৎসক, ইঞ্জিনিয়ার, কৃষিবিদ, বিসিএস ক্যাডার এবং বিভিন্ন স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে এই সংগঠন টি গড়ে উঠেছে।
সংগঠনটির মূল লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য হচ্ছে  পঞ্চগড়ের চিকিৎসা, স্বাস্থ্যসেবা,শিক্ষা, কৃষি, কুসংস্কার, দরিদ্র মেধাবী দের বৃত্তি প্রদানএবং সামাজিক ও সাংস্কৃতিক মানোন্নয়ন করা। এর ধারাবাহিকতায় প্রতিষ্ঠার পর থেকে প্রাণোচ্ছ্বাসের অর্জন প্রায় ১৫ টি মেডিক্যাল ক্যাম্প এর মাধ্যমে ২০ হাজার মানুষকে বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা প্রদান, প্রায় ৫ হাজার মানুষের ব্লাড গ্রুপ নির্ণয়, অসংখ্য মেধাবীদের বৃত্তি প্রদান, ভর্তি পরীক্ষায় সাহায্যকরণ, মেধাবীদের ক্যারিয়ার কাউন্সিলিং,মক্তবের মাধ্যমে আরবি শিক্ষা প্রদান, শীত বস্ত্র বিতরণ, দুস্থদের সহযোগিতা প্রদান, নারী ও শিশুদের বিভিন্ন বিষয়ে সচেতনতা প্রদানের মতো অসংখ্য প্রোগ্রাম ।
প্রাণোচ্ছ্বাস এ বছরের আলোচিত মহামারী কোভিড – ১৯ ভাইরাস নিয়ে সচেতনতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে জুলাই মাসে  ১০,০০০ মাস্ক বিনামূল্যে বিতরণ করেছে এবং পঞ্চগড়ের করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলায় ঢাকাস্থ দুটি সংগঠনের সহায়তায়
অক্সিজেন সিলিন্ডারের দুটি প্রজেক্ট নিয়ে কাজ করছে। পবিত্র ঈদ – উল – আজহায় দুস্থ পরিবারদের মাঝে ঈদ উপহারও দিয়েছে ।
সংগঠনটি সংযোগ-এর সাথে পঞ্চগড়ের নারীদের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টির উদ্দেশ্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন বিতরণ কার্যক্রম হাতে নিয়েছে ।এরই লক্ষ্যে ৯ই অক্টোবর প্রাণোচ্ছ্বাসের সদস্যরা পঞ্চগড় সদর উপজেলার বানিয়াপাড়া, গড়িনাবাড়ি তে ৩০০ জন  কিশোরীর ও নারীদের মাঝে বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন বিতরণ করেছিলো এবং পিরিয়ড সম্পর্কে সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে ৫০০ লিফলেট বিতরণ করা হয়েছিলো ।
পঞ্চগড়ের কোনো নারী যাতে পিছিয়ে না থাকে এই লক্ষ্যে প্রাণোচ্ছ্বাস কাজ করে যাচ্ছে ।আমাদের আজকের প্রচেষ্টায় সহযোগিতা করেছে সংযোগ ও জয়া ।পঞ্চগড়ের বাকি উপজেলা গুলোতেও কিশোরী ও নারীদের স্বাস্থ্য সচেতনতায় বিনামূল্যে স্যানিটারি ন্যাপকিন বিতরণ কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছেন ।

You must be Logged in to post comment.

রূপসায় জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান বর্তমান সরকার ক্রীড়া ক্ষেত্রে এক অসামান্য সাফল্য অর্জন করেছে     |     হেলথ অ্যাসোসিয়েশনের কর্মবিরতি কলারোয়ায় কয়েক হাজার শিশুর হাম রুবেলা টিকাদান অনিশ্চিত     |     কলারোয়ায় মুক্তিযোদ্ধার ধর্ষিতা স্ত্রীকে দেখতে আসলেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল জেনারেল এসএম মুনীর     |     কলারোয়ায় বসত বাড়ীর পথ দখলের অভিযোগ     |     বগুড়ায় লাইট হাউসের ব্যতিক্রম বিতর্ক প্রতিযোগিতা     |     সুন্দরগঞ্জে ৩ জুয়াড়ির কারাদণ্ড     |     গাংনীর এলাঙ্গী গ্রামে অবৈধভাবে সরকারী রাস্তার গাছ কাটার অভিযোগ     |     রাণীশংকৈল কাতিহার গরুর হাটে অতিরিক্ত টোল আদায়     |     ইন্ডিয়া-বাংলাদেশ ফ্রেন্ডশিপ পাইপ লাইন প্রকল্প বেসরকারি প্রতিষ্ঠানের বাগান বাঁচাতে ফসলি জমি ঘরবাড়ির উপর দিয়ে রি-রুটিং ভুক্তভোগিদের বিক্ষোভ     |     সাতক্ষীরায় নিখোঁজের ৪০ ঘণ্টা পর নবজাতকের মরদেহ উদ্ধার, বাবা-মা গ্রেপ্তার     |