ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯শে জুলাই ২০২১ ইং | ১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

পঞ্চগড়ে  শারীরিক হেনেস্থার শিকার কলেজ পড়ুয়া ছাত্রী পঞ্চগড়ে হেনেস্তার শিকার কলেজ ছাত্রীর পোষ্ট সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল ঈদ কেনাকাটা করতে এসে হেনেস্থার শিকার কলেজ ছাত্রী

পঞ্চগড় প্রতিনিধি: পঞ্চগড়ের এক কলেজ ছাত্রী শারীরিক হেনেস্তার শিকার হয়েছে। ঈদের আগের দিন পঞ্চগড় বাজারে এ ঘটনাটি ঘটেছে। তার বাড়ি পঞ্চগড় পৌরসভার ইসলামবাগ এলাকায় । বর্তমানে সে পঞ্চগড় সরকারি মহিলা কলেজে পড়াশুনা করছেন।  ঈদের পরদিন বৃহস্পতিবার সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সে হেনেস্থার বিষয়টি নিয়ে একটি স্ট্যটাস (পোষ্ট) দেয়।  এর পরপরই  ফেসবুকের স্ট্যটাসটি ভাইরাল হয়ে যায়। এতে করে পঞ্চগড়ের সচেতন মহল ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যাক্ত করেছেন।  কেউ কেউ বিচার দাবী করছেন।
ফেসবুক স্ট্যটাস হতে জানা যায় ঈদের আগের দিন মেয়েটি তার ভাবীকে নিয়ে পঞ্চগড় বাজারে কাপড় ক্রয় করতে আসে। কাপড় দোকানগুলোর  সামনে হেটে হেটে যাচ্ছিল । এ সময় একজন যুবক তার বুকে হাত দেওয়ার চেস্টা করলে মেয়েটি প্রতিহত করে। হাত পুরোপুরি বুকে স্পর্শ করতে না পাড়ায় কুনুই দিয়ে তার বুক স্পর্শ করে যুবকটি পালিয়ে যাওয়ার চেস্টা করে । পরক্ষনেই মেেেয়টি তাকে ধরে ফেলে। যুবকটির শার্টের কলার ধরে আটকে রেখে চিৎকার করেন । কিন্তু আশে পাশের কেউ এগিয়ে আসেনি মেয়েটির চিৎকারে। পঞ্চগড় পুলিশ সুপার ও অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এবং ৯৯৯ এ ফোন করার চেস্টা করছিল কিন্তু মোবাইল ফোনের স্ক্রীনে বৃস্টির ফোঁটা পড়ার কারনে সম্ভব হয়নি। মেয়েটি এক হাতে ছেলেটিকে আটকে রাখে আরেক মোবাইলে কল করার চেস্টা করে । মেয়েটি অনেক ভয়ে কাঁপতে থাকে। যুবকটি তখন বলতে থাকে আমি এই বাজারেই ব্যবসা করি । আমি কোন অন্যায় করিনি । মেয়েটি তখন বলে তুই যে অপরাধ করেছিস সেটা তোর মুখ দেখে বোঝা যাচ্ছে। এ সময় অকথ্য ভাষায় মেয়েটি ছেলেটিকে গালিগালাজ করতে থাকে। পরে পাশের একজন কাপড় দোকানদার মেয়েটিকে বলতে থাকে এখানে গ্যানজাম(গোলযোগ) করবেন না। এ সময়য় পাশের লোকজন বলছিল ছেলেটি নেশাখোর ছেড়ে দেন।
মেয়েটি মুঠোফোনে  জানায় লোকলজ্জার ভয়ে আমি ঘটনাটি চাপা রেখেছিলাম । আজ বৃহস্পতিবার পূরো ঘটনাটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে লিখেছি।  সৌভাগ্যক্রমে ঘটনার সময় আমার দুজন পরিচিত লোক ঘটনাস্থলে আমাকে দেখতে পায় তারা প্রথমে ওই যুবকটিকে কিল ঘুষি মারতে থাকে পড়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। আমার কস্ট একটাই ওই সময়ে পাশা থাকা মানুষগুলো কেন এগিয়ে আসেনি? বৃহস্পতিবার বিকেলে আমাকে পঞ্চগড় সদর থানার ওসি ফোন করেছিলেন তিনি এ বিষয়ে পুলিশের সহযোগীতা দেওয়ার আশ্বাস দিয়েছেন।
পঞ্চগড় সরকারি মহিলা কলেজের অর্থনিতি বিভাগের অধ্যাপক হাসনুর রশিদ বাবু জানায় মেয়েটি আমার কলেজের ছাত্রী। তার সাথে এ বিষয়ে কথা হয়েছে । আমি চাই সমাজে এইসব ঘৃন্য মানসিকতা তথা বোখাটের কঠিন শ্বাস্তি দেওয়া হোক।

You must be Logged in to post comment.

ঠাকুরগাঁওয়ে হরিপুরে বিরল রোগে আক্রান্ত  তিন শিশু ।     |     বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবনে ২৭৬ টি রয়েল বেঙ্গল টাইগারের হদিস নেই!     |     গাংনীতে ঢেউটিন প্রদানের শ্লিপ বিতরণ অনুষ্ঠিত     |     সাতক্ষীরায় করোনার উপসর্গ নিয়ে ৫ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৬৫     |     নীলকরদের অত্যাচার নির্যাতনের কালের স্বাক্ষী ভাটপাড়া নীলকুঠি গাংনীর ভাটপাড়া নীলকুঠি এখন ডিসি ইকো পার্ক । পর্যটন-বিনোদন কেন্দ্র।     |     আটোয়ারীতে করোনায় মৃত ব্যক্তিদের দাফন বিষয়ে ধর্মীয় প্রতিনিধিদের প্রশিক্ষণ     |     ঠাকুরগাঁওয়ে রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে ধানের চারা রোপণ কার্যক্রমের উদ্বোধন     |     প্রাকৃতিক পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বনায়নের গুরুত্ব অপরিসীম -এমপি গোপাল     |     ফুলবাড়ীতে ওএমএমের চাল মুদি দোকানে এক হাজার টাকা জরিমানাসহ মুচলেকা     |     ঝিকরগাছায় সভাপতি করোনা আক্রান্ত হওয়ায় সুস্থতা কামনা করেছেন প্রধান শিক্ষক     |