ঢাকা, সোমবার, ৮ই মার্চ ২০২১ ইং | ২৪শে ফাল্গুন, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

বাগেরহাটে খিরাই চাষে বাম্পার ফলনে চাষির মুখে খুশির হাঁসি

শেখ সাইফুল ইসলাম কবির:বাগেরহাটের ফকিরহাটে বেতাগা ইউনিয়নের চাকুলী বিলে অর্গানিক পদ্ধতিতে খিরাই চাষ সহ ঘেরের পাড়ে নানা প্রকার সবজির চাষ করে বিপ্লব ঘটিয়েছেন এক মাদ্রাসার শিক্ষক। খিরাই সহ নানা প্রকার সবজির ফলনও বাম্ফার হয়েছে। এই বিলের শতাধিক চাষি তাদের মৎস্য ঘেরের পাড়ে বিভিন্ন প্রকার শীতকালিন সবজির চাষ করে কৃষিতে বিপ্লব ঘটিয়েছেন। উপজেলা কৃষি অফিসের নানা প্রকার পরামর্শ হাতে কলমে প্রশিক্ষন সহ নানা উপকরণ সামগ্রী বিতরন করায় এ অঞ্চলে কৃষিতে বিপ্লব ঘটানো সম্ভব হয়েছে। ইদুর নিধন বা দমনে কৃষি বিভাগ যদি আলাদা কোন প্রকল্প গ্রহন করেন, তাহলে কৃষিতে আরো অগ্রগতি করা সম্ভব হবে বলে অভিজ্ঞ মহলের মত।

জানা গেছে, উপজেলার বেতাগা ইউনিয়নের ধনপোতা গ্রামের মরহুম নকিমুদ্দিন শেখ এর ছেলে ও ভবনা ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষক মোঃ আবু দাউদ শেখ, করোনা কালিন সময়ে সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় চাকুলী বিলে মাত্র ৬০শতাংশ জমিতে গত বছরের ১৪ নভেম্বর বেতাগা দিবসের দিন সকালে শীতকালিন খিরাই রোপন করেন। এরপর তিনি দীর্ঘ পরিচর্যার পর ৩০ডিসেম্বর প্রথম খিরাই তোলা শুরু করেন। প্রথম দিকে প্রতিদিন ৭/৮মন খিরাই তুলে যা মনপ্রতি ৮/৯শত টাকায় বিক্রি করা শুরু করেন। বিষ ও রাসায়নিক মুক্ত খিরাই উৎপাদন করায় বাজারে এর চাহিদা অনেক গুন বেড়ে যায়। তিনি এপর্যন্ত প্রায় দেড় বিঘা জমিতে রোপনকৃত খিরাই দেড় থেকে দুই লক্ষ টাকার বেশি বিক্রয় করেছেন। যা নজির বিহীন।

একটি মাদ্রাসার ১জন সহকারী শিক্ষক হওয়া সত্বেও তিনি খিরাই চাষে যে সফলতা দেখিয়েছেন তা সত্যিই প্রসংশনীয়। শুধু তাই নয়, খিরাই ফসলের মধ্যে লুনা জাতের বেগুনের চাষও করেছেন তিনি। শীতকালিন সবজি খিরাই উঠে গেলে সেই জমিতে রোপনকৃত লুনা জাতের বেগুন চাষও ভাল হয়েছে। বেগুনের চারায় এখন অল্পঅল্প ফুল আসতে শুরু করেছে। বেগুনের ফসলও ভাল হবে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

এছাড়াও তিনি চাকুলী বিলে তাঁর নিজস্ব ৫বিঘার মৎস্য ঘেরের পাড়ে বেগুন, টমেটো, সিম,ওলকপি, ফুলকপি ও লাউ সহ নানা প্রকার সবজির চাষ করে বাম্পার ফলন পেয়েছেন। এর আগে তিনি ঘেরের পাড়ে করোলা চাষ করেছিলেন। তিনি সত্যিই একজন সফল চাষি বলেও অনেকে মন্তব্য করেছেন।

সবজি চাষি ও সহকারী শিক্ষক মোঃ আবু দাউদ শেখ বলেন, করোনা কালিন সময়ে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় তিনি সবজি চাষে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন। প্রতিটি ফসলও ভাল হয়েছে। ইচ্ছা থাকলেই সব কিছুই করা সম্ভব। তিনি আরো বলেন, সরকার চাষিদের স্বাবলম্বি করার জন্য যে কার্যক্রম গুলি পরিচালনা করেছেন সেগুলি খুব ভাল, কিন্তু ইদুর নিধন বা দমনের জন্য কৃষি বিভাগ যদি আলাদা কোন প্রকল্প গ্রহন করেন তাহলে কৃষিতে আরো অগ্রগতি করা সম্ভব হবে।

এছাড়াও বেতাগা ইউনিয়নের মাসকাটা বিল, ধনপোতা বিল, লখপুর ইউনিয়নের লখপুর বিল, বল্লবপুর বিল, ভবনা বিল, বাহিরদিয়া-মানসা ইউনিয়নের লালচন্দ্রপুর বিল, হুচলা বিল, সাতবাড়িয়া বিল, পিলজংগ ইউনিয়নের বালিয়াডাঙ্গা বিল সহ বিভিন্ন বিলে অবস্থিত মৎস্য ঘেরের পাড়ে বিপুল পরিমানে সবজির চাষ করা হয়েছে।

চাষিরা বলেন, ঘেরের পাড়ে ভেরির উপরে উর্বর জমিতে সবজির চাষ ভাল হয়। সে কারনে তারা ভেড়ী বা ফাতারির উপরে সবজির চাষ করে থাকেন এবং নিচু জমিতে মাছ ও ধানের ফসল করে থাকেন।

You must be Logged in to post comment.

৭ মার্চে রাণীশংকৈল থানা পুলিশের আনন্দ উদযাপন     |     তেতুঁলিয়ায় পুকুরের পানিতে ডুবে এক শিশুর মৃত্যু     |     সাংবাদিক শাহীনের শ্যালকের দাফন সম্পন্ন     |     রূপসা উপজেলা প্রসাশনের আয়োজনে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ দিবস উদযাপন     |     থানা পুলিশের আয়োজনে ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ দিবস উদযাপন     |     ঠাকুরগাঁওয়ে হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে বিনামুল্যে গরু বিতরণ ।     |     মেহেরপুরের গাংনী থানা পুলিশ আয়োজিত ৭ ই মার্চ উপলক্ষে আনন্দ উদযাপন অনুষ্ঠান     |     ঠাকুরগাঁওয়ে মেডিকেল টেকনোলজিস্টদের আনন্দ আয়োজন ।     |     ঝিকরগাছায় ঐতিহাসিক ৭ই মার্চ উপলক্ষে আনন্দ উদযাপন অনুষ্ঠানে ডা. মোঃ নাসির উদ্দিন এমপি     |     ঝিকরগাছা উপজেলা চেয়ারম্যানের মায়ের মৃত্যুতে যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য আনোয়ারের শোক     |