ঢাকা, সোমবার, ৩০শে নভেম্বর ২০২০ ইং | ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Breaking News

পঞ্চগড়ে বোদায় বিয়ের কথা বলে ডেকে নিয়ে মাইক্রোবাসে গৃহবধূকে রাতভর ধর্ষণ

পঞ্চগড় প্রতিনিধি: পঞ্চগড়ে বোদায় মাইক্রোবাসে রাতভর এক গৃহবধূকে (২০) ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে। ওই গৃহবধূর অভিযোগের প্রেক্ষিতে দুই ধর্ষক ও তাদের দুই জন সহযোগিকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন ময়দানদিঘী ইউনিয়নের সোনাপাড়া এলাকার জাহিদুল ইসলাম রতন (২৫), একই এলাকার অটোরিক্সা চালক আমিরুল ইসলাম (৩০), পঞ্চগড় পৌরসভার নিমনগর এলাকার মাইক্রোবাস চালক শহিদুল ইসলাম (২৭) ও পঞ্চগড় সদর উপজেলার ধাক্কামারা ইউনিয়নের শিকারপুর এলাকার নুর আলম (২৪)। এদের মধ্যে জাহিদুল ইসলাম রতন ও মাইক্রোবাস চালক শহিদুল ইসলামকে ধর্ষক হিসেবে এবং আমিরুল ইসলাম ও নুর আলমকে ধর্ষণে সহযোগী হিসেবে অভিযুক্ত করা হয়েছে। গ্রেপ্তার চার আসামীকে বুধবার দুপুরে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।
মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার ময়দানদিঘী ইউনিয়নের ওই গৃহবধূর সাথে সম্প্রতি রং নাম্বারে ময়দানদিঘী ইউনিয়নের সোনাপাড়া এলাকার যুবক জাহিদুল ইসলাম রতনের পরিচয় হয়। রতন মাঝে মধ্যে ওই গৃহবধূকে কল করে খোঁজ খবর নিতো। গত ২৬ অক্টোবর দুপুরে ওই গৃহবধূ তার স্বামীর সাথে ঝগড়া করেন। বিকেলে রতন ওই গৃহবধূর মোবাইলে কল করে বিয়ের প্রস্তাব দেয়। গৃহবধূও প্রলোভনে পড়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে গিয়ে ময়দানদিঘী বিআরটিসি কাউন্টারে যায়। সেখানে রতন ওই গৃহবধূকে বিয়ের জন্য কাজী অফিসে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে আমিরুলের অটোরিক্সায় করে বোদা বাজার হয়ে পঞ্চগড় রেলস্টেশনে নিয়ে যায়। সেখানে খাওয়া দাওয়ার পর গভীর রাতে শহিদুলের মাইক্রোবাসে তুলে নিয়ে মালাদাম এলাকার এক বন্ধুর বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে সুবিধে করতে না পেরে আবার ওই গৃহবধূকে নিয়ে পঞ্চগড় মৈত্রি ফিলিং স্টেশনে সামনে গাড়ি থামায়। এ সময় ওই গৃহবধূ তাদের উদ্দেশ্য বুঝতে পেরে চিৎকার করলে তারা তাকে মারধর করে এবং গলা চেপে ধরে। এক পর্যায়ে রতন ওই গৃহবধূকে ধর্ষণ করে। পরে চালক শহিদুলও তাকে ধর্ষণ করে। তারা দুজনের ভোর পর্যন্ত পালাক্রমে ধর্ষণ করে ওই গৃহবধূকে। এ সময় অটোরিক্সাচালক আমিরুল ও নুর আলম বাইরে ঘুরাফেরা করে পাহারা দেয়। ভোরে ওই গৃহবধূকে মোটরসাইকেল যোগে নিয়ে বোদা বাসস্ট্যান্ডে নামিয়ে দিয়ে চলে যায় রতন। খবর পেয়ে ওই গৃহবধূর স্বামী তাকে সেখান থেকে বাড়ি নিয়ে যায়। বাড়ি ফিরে মঙ্গলবার রাতে ওই গৃহবধূ তার স্বামীকে নিয়ে বোদা থানায় গিয়ে দুই ধর্ষকসহ চারজনকে আসামী করে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে একটি মামলা করেন। মামলার পর রাতেই রতনকে গ্রেপ্তার করে বোদা থানা পুলিশ। তার দেয়া তথ্য অনুযায়ী অপর ৩ আসামীকেও গ্রেপ্তার করা হয়। তাদের ব্যবহৃত মাইক্রোবাসটিও জব্দ করা হয়।
বোদা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আবু সায়েম মিয়া জানান, ওই গৃহবধূ বাদী হয়ে ওই চারজনের বিরুদ্ধে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের সংশোধন ২০২০ অধ্যাদেশে অপহরণ ও ধর্ষণের মামলা করেছেন। আসামীদের আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে। ধর্ষণের শিকার ওই গৃহবধূর ডাক্তারি পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

You must be Logged in to post comment.

নাটোরে বিকাশ কর্মীকে মেরে ২ লাখ টাকা ছিনতাই করে পালানোর সময় মোটরসাইকেল এক্সিডেন্টে পথচারী নিহত     |     ঠাকুরগাঁওয়ে বালিয়াডাঙ্গীতে বাংলাদেশ আওয়ামী মৎস্যজীবী লীগ এর স্বকৃীতর এক বছর ।     |     শিশুদের সুরক্ষার জন্য সমন্বিত উদ্যোগের মাধ্যমে সরকার কাজ করে যাচ্ছে – গাইবান্ধার ডিসি     |     সাতক্ষীরার দেবনগরে পল্লী সমাজের উদ্যোগে সম্প্রীতির মেলা     |     নিজ পুত্রবধূকে ধর্ষণের অভিযোগে সুন্দরগঞ্জে ধর্ষক শ্বশুর গ্রেফতার     |     কলারোয়ায় নিজের জমিতে ঘর বাধতে পারছে না এক জনস্বাস্থ্য প্রকৌশ অধিদপ্তরের সদস্য     |     ঝিকরগাছার গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়ন পরিষদে ব্রাকের সিটিসি আলোচনা সভা     |     গাংনীতে প্রধানমন্ত্রীর ত্রাণ ও কল্যাণ তহবিল থেকে ইস্যুকৃত আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ অনুষ্ঠান     |     বাগেরহাটে মোরেলগঞ্জে ঘরের অভাবে রোদ বৃষ্টির দিনলিপি এক দিনমজুরের     |     সুন্দরগঞ্জে জাতীয় যুব সংহতির সভা     |