ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২১শে জানুয়ারি ২০২১ ইং | ৮ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ
Breaking News

মারা গেলেন পঞ্চগড়ের যামিনী বালা শেষ ইচ্ছে পুরণ হলো না তার

পঞ্চগড় প্রতিনিধি : অবশেষে মারা গেলেন পঞ্চগড় জেলার সদর উপজেলার ধাক্কামারা ইউনিয়নের পূর্বশিকারপুর গ্রামের ৮১ বছরের বৃদ্ধা যামিনী বালা সেন। বঙ্গবন্ধুর প্রতি অকৃত্রিম ভালোবাসায় প্রতি বছর নানা অনুষ্ঠান পূজা-অর্চনার মধ্য দিয়ে শোক দিবস পালন করতেন কারী যামিনী। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে তিনি নিজ বাসভবনে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। যামিনী বালার ছেলে সত্যেন চন্দ্র সেন তার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
যামিনী বালা সেনের ছেলে সত্যেন চন্দ্র সেন জানান, বৃহস্পতিবার দুপুরে পূর্বশিকারপুর গ্রামের পারিবারিক শ্বশানঘাটে তার মৃতদেহ দাহ করা হয়। আগামী ১২/১৩ সেপ্টেম্বরে শেষকৃত্য অনুষ্ঠান অনুষ্ঠিত হবে। ইতোপূর্বে তার মা শ^াসকষ্টে ভুগছিলেন। কিন্তু গত ১০ আগস্ট থেকে তিনি গুরুত্বর অসুস্থ্য হয়ে শয্যাশায়ী হন।
তিনি জানান, আমার মায়ের শেষ ইচ্ছা আর পূরণ হলোনা। তিনি বড়ই আশায় বুক বেঁধে ছিলেন প্রধানমস্ত্রীকে একবার নিজ চোখে দেখবেন। কিন্তু তার আগেই তিনি না ফেরার দেশে চলে গেলেন। আমার মা যেন সগর্¦বাসী হন সেই কামণা করি ভগবানের কাছে।
তিনি আরও জানান, প্রতিবছর শোকের মাসে মা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের জন্য শোক পালন করেন। এবার তিনি শয্যাশায়ী থাকায় নিজে আয়োজন করতে পারেননি, তবে বিছানায় শুয়ে শুয়ে অংশ নিয়েছেন। তার নির্দেশেই এবার আমরা গত ১৭ আগস্ট বাসায় এই শোক পালন করেছি।
এখন থেকে মায়ের অনুপস্থিতিতেই আমরা সন্তানরাসহ পরিবারের সদস্যরা মিলে শোক দিবস পালন করবো। মৃত্যুর আগে মা এই নির্দেশ দিয়ে গেছেন বলেও তিনি জানিয়েছেন।
বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের প্রতি ব্যতিক্রমী ভালোবাসা দেখিয়ে আসছেন পঞ্চগড় জেলার সদর উপজেলার ধাক্কামারা ইউনিয়নের পূর্বশিকারপুর গ্রামের ৮১ বছরের বৃদ্ধা যামিনী বালা। মৃত্যুর প্রহর গুনলেও বঙ্গবন্ধুর প্রতি তার ভালোবাসা একটুকুও কমেনি। তাইতো মৃত্যু শয্যাতেও পূর্জা-অর্চনার মধ্য দিয়ে শোক পালন করছেন। প্রতি বছর শোকের এই মাসে যামিনী বালা ও তার পরিবার বিভিন্ন আঙ্গিকে শোক দিবস পালন করছেন। বঙ্গবন্ধুর পরিবারের কল্যাণ কামনায় প্রদীপ জে¦লে দূর্বা ঘাস, ফুলসহ নানা উপকরণ দিয়ে নারায়ন পূজাসহ বিশেষ প্রার্থনা করে আসছেন। এ সময় কীর্তন ও প্রসাদ বিতরণও করে আসছেন।
যামিনী বালা জানান, একাত্তরে পাকিস্তানি সৈন্যরা যামিনী বালাদের ঘরবাড়ি জ¦ালিয়ে দিলেও জন্মভূমির ভিটে ছাড়েনটি তিনি। নানা প্রতিক’লতা, নানা শারিরীক মানসিক নির্যাতন সহ্য করেও শেষ পর্যন্ত তিন ছেলে ও দুই মেয়েকে নিয়ে দেশের মাটি কামড়ে বসবাস করে আসছেন। ছোট্ট বেলা থেকেই বঙ্গবন্ধুর প্রতি ছিল অকৃত্রিম ভালোবাসা। পঁচাত্তরে বঙ্গবন্ধুকে স্বপরিবারে হত্যা করা হলে শোকাহত হন তিনি। বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের সদস্যদের মৃত্যুর পর প্রতি বছর পূজা অর্চনা করেন। প্রথমদিকে নিজে করলেও পরবর্তীতে পরিবারের সদস্যরা এতে যোগ দেন। পরিবারে সবাইকে নিয়ে বছরের পর বছর বঙ্গবন্ধুর প্রতি ভালোবাসা দেখিয়ে আসছেন যামিনী বালা। চলতি বছর জটিল রোগে ভোগা যামিনী মৃত্যু শয্যায়। মৃত্যু শয্যাতেও পরিবারের সদস্যদের নিয়ে বঙ্গবন্ধুর জন্য বিশেষ প্রার্থনা ও পূজা অর্চনা করেছেন। তিনি নিজে এই পূজা-অর্চনা করতে না পারলেও তার নির্দেশে ছেলে সত্যেন সেন, কমলাকান্ত সেন ও মংলা সেনের ব্যবস্থাপনায় পরিবারের সদস্যরা এবারেও এসব আয়োজন করেছেন।
যামিনী বালা জানান, একাত্তরে বহু নির্যাতন হয়েছে আমাদের উপর। ঘরবাড়ি জ¦ালিয়ে দিয়েছে, গরু ছাগলসহ সব কিছু লুটপাট করে নিয়ে গেছে। তবুও জন্মভিটা ছেড়ে যাই নি। বঙ্গবন্ধু আমাদের জন্য অনেক কিছু করেছেন। তিনি সকল ধর্মের মানুষকে সমান চোখে দেখতেন। তাই আমি তার পরিবারের মঙ্গল কামনায় প্রার্থনা করে আসছি। বঙ্গবন্ধুর মতো তার মেয়ে শেখ হাসিনাও সুন্দরভাবে দেশ চালাচ্ছেন। আমি তাঁকে আশীর্বাদ জানাই। যেন এমনভাবেই দেশ চালাতে পারেন।
যামিনী বালা বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনারও ভক্ত। এই বৃদ্ধা জীবনে একবার মাত্র দূর থেকে শেখ হাসিনাকে দেখার সৌভাগ্য হয়েছে বলে জানিয়েছেন। যামিনী বালার কোন চাওয়া পাওয়া নেই কিন্তু মৃত্যুর আগে তার শেষ ইচ্ছা প্রধানমন্ত্রীকে কাছ থেকে একবার দেখবেন। তিনি জানেন এই চাওয়া হয়তো পূরণ হবে না। তারপরও তার কোন কষ্ট নেই, তিনি বিছানায় শুয়ে শুয়ে ছবির মাধ্যমে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে আশীর্বাদ করছেন। মৃত্যুর আগে তার অন্য কোন চাওয়া পাওয়া ছিল না, শুধুই বঙ্গবন্ধুর কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কাছ থেকে একবার দেখার শেষ ইচ্ছা ব্যক্ত করেছিলেন যামিনী বালা। কিন্তু তা আর পূরণ হলো না, তার আগেই তিনি চলে গেলেন না ফেরার দেশে।
উল্লেখ্য, গত ১৮ আগস্ট বাংলা ট্রিবিউনে এ নিয়ে একটি সংবাদ আপলোড হয়েছিল। সেই সংবাদে বঙ্গবন্ধুর প্রতি অন্যরকম ভালোবাসা থেকেই বছরের পর বছর শোক দিবস পালন করে আসছেন তিনি।

You must be Logged in to post comment.

বোদায় ভূমি ও গৃহহীন ৫৫টি পরিবারের জন্য ঘর প্রস্তুত     |     গৃহকর্ত্রীকে নির্যাতন করে পালানো গৃহকর্মী ঠাকুরগাঁওয়ে গ্রেফতার     |     রূপসায় কর্তৃপরে দায়িত্বহীনতার কারণে আজও মানবেতর জীবনযাপন করছে আশ্রায়ন প্রকল্প – ১ এর অধিবাসীরা     |     গাংনীতে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের অভিযান। দুটি বেকারীকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা     |     ঠাকুরগাঁওয়ে পৌর নির্বাচনে ঋণখেলাপি হয়েও বৈধ হলো আওয়ামী লীগ মনোনীত নৌকা প্রার্থী ।     |     সুন্দরগঞ্জে ইউপি সদস্য পদে উপ-নির্বাচনের গণবিজ্ঞপ্তি     |     সাতক্ষীরায় শেখ হাসিনার গাড়িবহরে হামলার মামলায় তৃতীয় দিনের মত যুক্তিতর্ক উপস্থাপন     |     ঠাকুরগাঁওয়ে দৈনিক ভোরের দর্পনের প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত ।     |     আটোয়ারীতে কৃষক সমবায় সমিতির উদ্যোগে শীতবস্ত্র বিতরণ     |     পঞ্চগড়ে শৈত্যপ্রবাহের সাথে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ১১ ডিগ্রিতে।     |