ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ইং | ১৭ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

আম যাচ্ছে ইউরোপে, সমৃদ্ধ হবে জেলার অর্থনীতি

রবিউল এহ্সান রিপন, ঠাকুরগাও: দেশের গন্ডি পেরিয়ে প্রথমবারের মত ইউরোপে রপ্তানি হতে যাচ্ছে ঠাকুরগাঁওয়ের আম। বাগান মালিক ও ব্যবসায়ীদের লাভের পাশাপাশি সমৃদ্ধ হবে জেলার ও দেশের অর্থনীতি। আর এ রপ্তানির মাধ্যমে ভবিষ্যতে মানসম্মত আম বিদেশে রপ্তানির পথ সুগম হবে বলে আশা সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের।

দেশের উত্তরের জেলা ঠাকুরগাঁও। জেলায় ধান, গম, ভুট্টাসহ বিভিন্ন রকম সবজি ও ফল উৎপাদিত হয়। উৎপাদিত পণ্য জেলার চাহিদা পূরণের পাশাপাশি দেশের চাহিদা পূরণে গুরুত্বপূর্ণ ভ’মিকা পালন করে। আগে আলু, করলাসহ কয়েকটি পণ্য রপ্তানি হলেও ফল রপ্তানি হয়নি। এবারে প্রথম আ¤্রপালি, বানানা ম্যাংগো ও বারি আম-৪ জাতের ৫০০ কেজি আম ইংল্যান্ডে রপ্তানির মাধ্যমে বিদেশে আম রপ্তানি শুরু হয়।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের রফতানিযোগ্য আম উৎপাদন প্রকল্পের আওতায় ঠাকুরগাঁওয়ের পীরগঞ্জ উপজেলার আম বাগানি পলাশ চন্দ্রের বাগান পরিদর্শন করেন রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা। পরে সে বাগান থেকে নেওয়া তিনটি জাতের ৫০০ কেজি আম জেলা প্রশাসকের কার্যালয় সম্মেলন কক্ষে হস্তান্তরের মধ্য দিয়ে বিদেশে আম রপ্তানির সূচনা হয়।

জেলা কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের দেওয়া তথ্য মতে, জেলায় ৭৯৫০ একর জমিতে ৪২০১ টি বাগানে ২২ টি জাতের আম আবাদ করা হয়েছে। যার মধ্যে এবারে ৫০ থেকে ১০০ মেট্রিক টন আম রপ্তানির লক্ষমাত্রা ধরা হয়েছে।

মানসম্মত আম উৎপাদন, ন্যায দাম ও রপ্তানিকারকদের সাথে যথাযথ সমন্বয়ের মাধ্যমে এ জেলা থেকে আগামীতে বিপুল পরিমাণ আম রপ্তানি হবে বলে আশা কর্তৃপক্ষের।

নিজের বাগানের উৎপাদিত আম ইউরোপে রপ্তানি করতে পেরে খুশি বাগান মালিকেরা। বাগান মালিক পলাশ চন্দ্র বলেন, আমার বাগানের আম বিদেশে পাঠাতে পেরে আমি অনেক গর্বিত। এই জেলার আম অনেক সুস্বাদু। আম রপ্তানী হলে জেলায় আম চাষ আরো বৃদ্ধি পাবে।

রপ্তানিকারক প্রতিষ্ঠান গেøাবাল ট্রেড লিংক এর সিইও কাওসার আহমেদ রুবেল বলেন, ঠাকুরগাঁওয়ের বিভিন্ন বাগান প্রদর্শন করে এখানকার আম রপ্তানি উপযোগী বলে আমরা মনে করি। এবারই প্রথম এই জেলা থেকে আম রপ্তানি করা হবে। আমরা আশা করছি আম চাষিরা আমাদেরকে গুনগত মানসম্পন্ন আম সরবরাহ করবে। তাহলে বিদেশে আমাদের আমের চাহিদা বৃদ্ধি পাবে সেই সাথে আমের বাজার আরো প্রসারিত হবে।

রপ্তানিযোগ্য আম উৎপাদন প্রকল্পের প্রকল্প পরিচালক আরিফুর রহমান বলেন, গত বছরের চেয়ে এবারে দ্বিগুণ আম রপ্তানি করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। এ বছরে প্রকল্পের শুরু হল, আর এবারে ঠাকুরগাঁওয়ের আম ইউরোপের বাজারে যাবে। এর মাধ্যমে বাগান মালিকদের পাশাপাশি এ শিল্পে যারা আছেন তারা সকলে লাভবান হবে বলে আশা করছি।

ঠাকুরগাও কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সিরাজুল ইসলাম বলেন, সুভক্ষণের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিক ভাবে ইউরোপে আম প্রেরণ করা হচ্ছে। আর ক্রমান্বয়ে জেলায় আম বাগান বাড়ছে। রপ্তানির মাধ্যমে চাষীরা অধিক মূল্যের পাশাপাশি স্থানীয় শ্রমিকদের কর্মসংস্থানের সুযোগ হবে। এতে করে জেলার অর্থনীতির পরিবর্তন আসবে।

ঠাকুরগাও জেলা প্রশাসক মাহবুবুর রহমান বলেন, অন্যন্যা জেলায় আম যখন শেষের দিকে তখন আমাদের জেলার আম হার্ভেস্ট করা শুরু হয়। আমাদের অপার সম্ভাবনা থাকা সত্বেও এবারে প্রথম বিদেশে রপ্তানির সুযোগ হল। আগামীতে এটি আরো বেড়ে মানসম্মত আম রপ্তানির পথকে সুগম করবে। সেই সাথে রপ্তানি উপযোগী আম উৎপাদনে জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে সার্বিক সহযোগীতা করা হবে।

You must be Logged in to post comment.

বাংলাদেশ ফিমেইল একাডেমির ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা নিয়ে পরামর্শ সভা সম্পন্ন     |     কোটচাঁদপুরে জামায়াত নেতার ১৭ বছরের কারাদন্ড     |     কোটচাঁদপুরে ট্রেনের ধাক্কায় এক স্কুল ছাত্রের মৃত্যু     |     গাংনীতে মসজিদ কমিটির সভাপতি ও ক্যশিয়ারের দুর্নীতির বিরুদ্ধে দাবিতে সংবাদ সম্মেলন     |     মাদারীপুরে নসিমন-মোটরসাইকেল সংঘর্ষে ২ জন নিহত     |     বিএসএমআরএএইউ এর লালমনিরহাটে পঞ্চম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী     |     আটোয়ারীতে সর্বজনীন পেনশন স্কিম বাস্তবায়ন সংক্রান্ত মতবিনিময় সভা     |     গাংনীতে ছাগলে তামাক ক্ষেত খাওয়ার প্রতিবাদ: একই পরিবারের ৩ জনকে কুপিয়ে জখম     |     ঠাকুরগাঁওয়ে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের স্মৃতি নিয়ে নির্মিত ‘আত্নকথন’      |     ঝিকরগাছায় আরও এক ফালি ফুলের রাজ্যের সন্ধান !     |