ঢাকা, রবিবার, ৫ই ডিসেম্বর ২০২১ ইং | ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

 ছাতকে রেলওয়ে কলোনি বেদখল সুনামগঞ্জের ছাতক বাজার রেলওয়ের সরকারি কলোনির কোয়ার্টারগুলো এখন অবৈধ দখলদারদের কবলে।

আরিফুর রহমান মানিক ছাতক(সুনামগঞ্জ) প্রতিনিধি :সুনামগঞ্জের ছাতক বাজার রেলওয়ের সরকারি কলোনির কোয়ার্টারগুলো এখন অবৈধ দখলদারদের কবলে। দীঘদিন ধরে কর্মচারী-শ্রমিকদের আবাসিক কলোনিগুলোতে বহিরাগত লোকজন বসবাস করলেও রেলওয়ে বিভাগের সংশ্নিষ্ট কর্মকর্তাদের নজরদারি নেই। এখানে কেউ রেলওয়ে শ্রমিকদের ম্যানেজ করে বসবাস করছেন, আবার কেউ শ্রমিকদের নামে বাসা ভাড়া নিয়ে সপরিবারে বছরের পর বছর বসবাস করছেন। আর এ কারণে এসব সরকারি কোয়ার্টারের গ্যাস ও বিদ্যুৎ বিল বাবদ প্রতি মাসেই লাখ লাখ টাকা পরিশোধ করতে হচ্ছে ছাতক রেলওয়ে কর্তৃপক্ষকে।
ছাতক রেলওয়ের সরকারি আবাসিক এলাকায় (বিআর) কংক্রিট স্লিপার কারখানার ও ছাতক বাজার রেলস্টেশনে কর্মরত শ্রমিক-কর্মচারী ও কর্মকর্তাদের বসবাসের জন্য দেড় শতাধিক বিভিন্ন শ্রেণির একতলাবিশিষ্ট বাসা ও কয়েকটি দোতলা ও তিন তলা ভবন রয়েছে। এসব সরকারি বাস ভবনের বেশ কয়েকটি একতলা ভবন বছরের পর বছর পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে থাকায় এ বাসাগুলোর দরজা-জানালা অনেক আগেই চুরি হয়ে গেছে। এর মধ্যে রেলওয়ে স্টেশন ও রোপওয়ের প্রায় ২০ জন শ্রমিক-কর্মচারী, রেলওয়ে স্লিপার কারখানার ২৫-৩০ জন শ্রমিক-কর্মচারী সরকারি বাসায় পরিবার নিয়ে বসবাস করছেন। রেলস্টেশনের শ্রমিকদের জন্য বরাদ্দকৃত ১০-১২টি বাসা পরিত্যক্ত অবস্থায় পড়ে আছে। এ ছাড়া প্রথম শ্রেণির কর্মকর্তা না থাকায় এই বাসভবন দীর্ঘদিন ধরে পরিত্যক্ত থাকায় বিনষ্ট হচ্ছে। দ্বিতীয় শ্রেণির কর্মকর্তাদের বাসভবনগুলোর অধিকাংশই খালি অবস্থায় পড়ে আছে।
দখল হয়ে যাওয়া রেলওয়ে সরকারি কোয়ার্টারের অনেক বাসা এখন মাদকসেবী ও অপরাধীদের অভয়াশ্রমে পরিণত হয়েছে। সম্প্রতি রেলওয়ের আবাসিক কলোনির আশপাশের সীমানায় দেয়াল নির্মাণ করা হলেও পরিত্যক্ত পাকা ভবনগুলোর কোনো সংস্কার কাজ করা হয়নি। ফলে সরকারি কর্মচারীরা এখানে থাকতে পারছেন না। আর সেই সুযোগে ছিন্নমূল পরিবারগুলোর দখলে চলে যাচ্ছে বিভিন্ন ভবন। এদিকে অবৈধ দখলদারদের বিরুদ্ধে রেলওয়ের কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকে উচ্ছেদ বা আইনগত কোনো ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না রহস্যজনক কারণে।
সরেজমিন রেলওয়ে সরকারি কলোনির আবাসিক এলাকা ঘুরে দেখা গেছে, কোয়ার্টারগুলোর অনেক পরিত্যক্ত ভবনে বনজঙ্গল আর লতাপাতায় ঘিরে থাকায় বিষাক্ত সাপের আবাসস্থল তৈরি হয়েছে। কিছু পরিত্যক্ত ভবনে এলাকার বেশ কয়েকটি বস্তুহারা ও ছিন্নমূল পরিবার দীর্ঘদিন ধরে বসবাস করছে। পরিত্যক্ত ভবনের বসবাসকারী একাধিক পরিবার জানায়, এ বাসাগুলোর দরজা-জানালা নেই, তারা এখানে বিনা ভাড়ায় বসবাস করছেন।
এলাকার স্থানীয় লোকজনের অভিযোগ, রেলওয়ের সম্পদ দেখভাল করার দায়িত্ব যাদের ওপর, তারা সবকিছু দেখেও না দেখার ভান করছেন।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক রেলওয়ে বিভাগের শ্রমিকরা জানান, কতিপয় দূর্নীতিবাজ কর্মকর্তাকে ম্যানেজ করে সরকারি বাসাগুলো বহিরাগতরা দখলে নিয়েছে। এসব বাসার ভাড়ার টাকাও কৌশলে যাচ্ছে দূর্নীতিবাজ ওই কর্মকর্তাদের পকেটে। অথচ এসব বাসায় ব্যবহারের গ্যাস ও বিদ্যুৎ বিল বাবদ লাখ লাখ টাকা প্রতি মাসে পরিশোধ করতে হচ্ছে রেল কর্তৃপক্ষকে।
ছাতক রেলওয়ের (ভারপ্রাপ্ত) নির্বাহী প্রকৌশলী হাবিব উল্লহ খান বলেন, রেলওয়ে সরকারি কোয়ার্টার অবৈধ দখলের বিষয়ে ইতোমধ্যেই সংশ্নিষ্ট ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে চিঠি দিয়ে জানানো হয়েছে। আশা করি, এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
রেলওয়ে চট্টগ্রাম (পূর্ব) অঞ্চলের প্রধান নির্বাহী প্রকৌশলী সুবক্তগীন এ বিষয়ে বলেন, রেল বিভাগের সরকারি কোয়ার্টার অবৈধ দখলে থাকার বিষয়টি আমার জানা নেই। এ ব্যাপারে বিস্তারিত খোঁজখবর নিয়ে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে

You must be Logged in to post comment.

পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ায় মোটরসাইকেলের ধাক্কায় বৃদ্ধার মৃত্যু     |     টাঙ্গাইলে বাস-কাভার্ডভ্যান সংঘর্ষে প্রাণ গেলো কাভার্ডভ্যান চালকের     |     বগুড়ার শেরপুরে মহাধুমধামে দুই বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধীর বিয়ে সম্পন্ন!     |     শৈলকুপার ১২টি ইউনিয়নে নৌকার মাঝি হলেন যারা     |     আটোয়ারী থানার নবাগত ওসি’র সঙ্গে সাংবাদিকদের মতবিনিময়     |     ঝিকরগাছায় মৎস্যজীবী লীগের ৪টি ইউনিয়নের আহবায়ক কমিটি গঠন     |     প্রধানমন্ত্রীর দেয়া উপহারের ট্রেন পাল্টে দেয়ার প্রতিবাদে ঝিকরগাছায় মানববন্ধন     |     ঝিকরগাছা পেন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে বিনামূল্যে জন্মনিবন্ধনের প্রচারণামূলক ব্যানার ফেস্টন স্থাপন     |     পঞ্চগড়ের হাড়িভাসা ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতিকে দল থেকে বহিস্কারের দাবীতে ঝাড়ু মিছিল     |     আটোয়ারীতে ওসি’র বদলীজনিত বিদায় সংবর্ধনা এবং নবাগত ওসি’র বরণ অনুষ্ঠান     |