ঢাকা, শুক্রবার, ১৯শে এপ্রিল ২০২৪ ইং | ৬ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জীবন যেখানে যেমন ! জীবন জীবিকার তাগিদে বৃদ্ধ বয়সেও জেকের আলী ফেরী করে ঝাঁটা-বাড়–ন

আমিরুল ইসলাম অল্ডাম মেহেরপুর জেলা প্রতিনিধি : জীবন জীবিকার তাগিদে বৃদ্ধ বয়সেও ফেরী করে ঝাঁটা বাড়–ন বিক্রি করছেন জেকের আলী। সংসারে ২ মেয়ে ও ১ ছেলে নিয়ে জীবন যুদ্ধ শুরু করেছিলেন এই দীর্ঘদেহী পরিশ্রমী মানুষটি। বাবা মা অনেক আগেই গত হয়েছেন। জমি জায়গা স্থাবর অস্থাবর বলতে কিছুই নেই শুধু ভিটে ছাড়া। মেয়ে ২ টার বিয়ে হয়েছে। ছেলেটা ছোট বাড়ীতেই থাকে। রোজগার না থাকায় ছেলেটা সংসার চালাতে হিমসিম খায়। নিজের সংসার চালিয়ে বাবা মাকে দেখার সুযোগ তার হয়ে উঠেনি। তাই বৃদ্ধা পরিবারকে নিয়ে কোনরকম দ’ুবেলা শাকভাত খেয়ে বেঁচে থাকার আকুতিমাত্র। দুমুঠো খাবারের জন্য অন্যের কাছে হাত না বাড়িয়ে তিনি দীর্ঘদিন ধরে পায়ে হেটে গাংনী ও বামন্দী শহরের অলি গলিতে মা বোনদের কাছে ঝাঁটা বাড়–ন বিক্রি করে থাকেন।
হ্যা,. . এতক্ষণ হয়তো আপনারা চিনে ফেলেছেন। আমি কার কথা বলছি ! আশি উর্দ্ধ বয়সী এই বৃদ্ধ ফেরিওয়ালা আর কেহ নন তিনি জেকের আলী। জেকের আলী গাংনী উপজেলার বামন্দী ইউনিয়নের অন্তর্গত তেরাইল কুঠি পাড়ার মৃত বাহার আলীর ছেলে। জেকের আলী একজন বাক এবং শ্রবণ প্রতিবন্ধী মানূষ। অনেক জোরে কথা বললে তিনি শুনতে পান। তিনি ছোট বেলা থেকেই একজন অসহায় পরিবারে বেড়ে উঠেছেন। জীবন জীবিকার জন্য আজ পথে পথে পায়ে হেটে ফেরি করে ঝাঁটা বাড়–ন বিক্রি করছেন।
একদিন কথা হলো সেই বৃদ্ধ জেকের আলীর সাথে। কথা প্রসঙ্গে জানা গেল, জেকের আলী হাজারও অভাব অনটনেও ভিক্ষাবৃত্তি না করে নিজের রোজগারের টাকা দিয়ে দুমুঠো খাবারের ব্যবস্থা কওে থাকেন। প্রায় ২০/২৫ বছর যাবত জেকের আলী ঝাঁটা বাড়–ন বিক্রি করে বেড়াচ্ছেন। জেকের আলী জানান, আমি কারও কাছে হাত পেতে ভিক্ষাবৃত্তি করি না। কষ্ট করে বাড়ি ঘর পরিস্কার রাখার জন্য ঝাঁটা বাড়–ন বিক্রি করে সংসার চালাই। সারাদিনে ৫/৬ টি ঝাঁটা এবং ৪/৫ টি বাড়–ন বিক্রি হয়। বর্তমানে ঝাঁটার খিলের (নারিকেলের পাতার খিল) এবং খড়ের দাম অনেক বেশী। একটি ঝাঁটা (বাঁশের আগালেসহ) ২৫০ টাকা থেকে সাড়ে ৩০০ টাকায় বিক্রি করলেও লাভ তেমন থাকে না। অন্যদিকে নারিকেলের খিলের ঝাঁটা (হাত ঝাঁড়–) ১৪০ টাকা থেকে ১৭০ টাকায় বিক্রি করতে হয়। বাড়–ন এর খড়ের দাম বেশী হওয়ায় ৭০-৮০ টাকায় বিক্রি করতে হয়। অল্প কিছু টাকা লাভ হয় । সব মিলিয়ে ২৫০ টাকা থেকে ৩ শ’ টাকা রোজগার হয়। এতেই বুড়ো স্ত্রী ও ঘওে থাকা মেয়েকে নিয়ে কোনরকম খেয়ে বেঁচে থাকা।
তবে সারাদিন পথে পথে হেটে ফেরি করে ঝাঁটা বাড়–ন বিক্রি করতে খুব কষ্ট হয়। ব্দ্ধৃ বয়সে আর হাটতে পারিনা। আর কতদিন এভাবে কষ্ট করে জীবন চালাবো। স্পষ্ট করে কথাও বলতে পারে না জেকের আলী। কথাগুলো বলতে বলতে জেকের আলীর চোখের কোণে জল গড়িয়ে গেল। জেকের আলী আরও জানান, আমার এই ব্যবসা দেখে অনেকেই ঠাট্টা বিদ্রæপ করে। কিন্তু কি করব্ োজীবন তো আর থেমে থাকে না। দুমুঠো ভাতের জন্য সকাল থেকে সন্ধ্যা পর্যন্ত শহরের অলিতে গলিতে ঘুরে ঘুরে ফেরি করি। আমাকে চেয়ারম্যান মেম্বররা কোন সাহায্য সহযোগিতা করে না।
এনিয়ে আলাপ করতে করতে তেরাইল গ্রামের আজিজুল হক জানান, আমরা ছোট বেলা থেকেই দেখে আসছি জেকের আলী ঝাঁটা বাড়–ন বিক্রি করছেন। অনেক কষ্ট করে দিনাতিপাত করে থাকেন। শুনেছি তিনি বয়স্ক ভাতা পান । তবে ঐ টাকা দিয়ে খাবার তো দূরের কথা ওষধ কেনার খরচও হয় না। অনেকদিন না খেয়েই গ্রামে গ্রামে ঘুরে ঝাটা বাড়–ন বিক্রি করে বাড়ি ফেরেন।

You must be Logged in to post comment.

প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনী দায়সারা আয়োজনে খামারিদের দুর্ভোগ ৭ ঘন্টায় পশুর খাবার দেয়া হয়েছে মাত্র এক আটি ঘাস ও ১ কেজি ভূসি প্রদর্শনী শেষে আগে ৮০০ থেকে ১ হাজার টাকা দেয়া হলেও এবার দেয়া হয়েছে মাত্র ১৫০ থেকে ৩৫০ টাকা।     |     বিরল উপজেলা সিএসও এর দ্বি-মাসিক সভা অনুষ্ঠিত     |     বিরলে দিনব্যাপী প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনীর উদ্বোধন অনুষ্ঠিত     |     টাঙ্গাইলে সেরা ওসি নির্বাচিত হলেন আহসান উল্লাহ্, পেলেন শ্রেষ্ঠ সম্মাননা পুরস্কার      |     বিএনপি নেতা সোহেলের নিঃশর্ত মুক্তি দাবিতে রংপুরে  মানববন্ধন ও সমাবেশ      |     বীরগঞ্জে ইউএনওকে বয়কট করলেন ইউপি চেয়ারম্যানরা     |     আটোয়ারীতে দিনব্যাপি প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী অনুষ্ঠিত     |     অসম্প্রদায়িক বাংলাদেশ তথা সোনার বাংলা গড়ার প্রশ্নে যে কোন অপশক্তিকে প্রতিহত করা হবে। মুজিবনগর দিবসে এই হোক অঙ্গীকার -কাজী জাফর উল্লাহ     |     বগুড়ার শেরপুরে প্রানিসম্পদ সেবা সপ্তাহ ও প্রদর্শনীর উদ্বোধন     |     আটোয়ারী উপজেলা আইন-শৃঙ্খলা কমিটির মাসিক সভা অনুষ্ঠিত     |