ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ২৯শে জুলাই ২০২১ ইং | ১৪ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

ঝিকরগাছায় ৩দিনের ঐতিহ্যবাহী পৌষকালী পূজা স্বাস্থ্যবিধি মেনেই শুরু হচ্ছে আজ ৫’শ বছরের ঐতিহ্য বহন করে দাঁড়িয়ে আছে গদখালী কালীমন্দির

আফজাল হোসেন চাঁদ : প্রায় ৫’শ বছরের ঐতিহ্য বহন করে আজও কালের সাক্ষী হয়ে দাঁড়িয়ে রয়েছে যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালীর ঐতিহাসিক কালীমন্দির। আজ মঙ্গলবার থেকে শুরু হচ্ছে তিনদিন ব্যাপি স্বাস্থ্যবিধি মেনে ধর্মীয় ভাবগম্ভীর পরিবেশে পৌষকালী পূজা অনুষ্ঠিত হবে। প্রতি বছর পৌষ মাসের অমাবস্যা তিথিতে এই ঐতিহ্যবাহী পৌষকালী পূজা শুরু হয়।
প্রচীনকাল থেকে যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার গদখালী বাজারের পাশে স্থাপিত এই মন্দিরকে ঘিরে রয়েছে নানা কিংবদন্তি। যা রূপকথার গল্পের মতো। রয়েছে ইতিহাস ও ঐতিহ্য। স্থানীয় গবেষক ও ঐতিহাসিকদের মতে, এই মন্দিরের স্থাপত্যকাল খ্রীষ্টিয় শতাব্দীর ১৬৬২সাল। দীর্ঘকাল ধরে এই মন্দিরটিকে ঘিরে পালিত হয়ে আসছে পৌষকালী পূজা। পূজাতে দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আগত পূর্ণাথী ছাড়াও পাশ্ববর্তী দেশ ভারত, নেপালসহ বিভিন্ন দেশের হিন্দু সম্প্রদায়ের ভক্তদের মিলন মেলায় ঘটে। পূজার অনুষ্ঠানে দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে হস্ত ও কুটির শিল্পীদের তৈরী বিভিন্ন পণ্যসামগ্রী এখানে স্থান পায়। পৌষকালী পূজা শুরু হওয়ার পূর্বে কয়েক’শ বছর ধরে এখানে ‘ঘঠ’ পূজা পালিত হতো বলে প্রবীণ হিন্দু সম্প্রদায়রা জানিয়েছেন।
প্রবীণ ব্যক্তিরা মন্দিরের ইতিহাস সম্পর্কে জানতে চাইলে তারা বলেন, ইংরেজ শাসনামলে পূর্তগীজ দস্যূরা ওই গ্রামে আশ্রয় নেয়। অতঃপর দস্যূদের সরদার রডারিক রডা জোর করে বৃদ্ধ কমলেস’র ষোড়শী কন্যা মাদলসাকে বিয়ে করে। রডারিক রডা অন্য ধর্মের মেয়েকে জোর পূর্বক বিয়ে করে তাকে না পেয়ে সন্ন্যাসী জীবন বেছে নিয়ে ওই গ্রামে থেকে যায়। দুই ধর্মের দুই জনের প্রেম প্রণয়ের জন্য রডারিক উপাসনার জন্য গদখালী (তৎকালিন গডকালী) গ্রামের হরহরী নদের পাশে গড়ে তোলে গড বা কালী মন্দিরটি। যুদ্ধে রডারিক রডার মৃতের পর মাদলসা তার বাকি জীবন ওই মন্দিরে কাটিয়ে দেয়। পরবর্তীতে সেটা গদখালী কালীমন্দির নামে পরিচিতি পায়। ১৯৯১ সাল থেকে মন্দিরটি সংস্কারের কাজ শুরু হয়। মন্দিরের উন্নয়নমুলক কাজ অদ্যবদী চলমান রয়েছে বলে গদখালী সার্বজনীন কালী মন্দিরের কমিটি এ তথ্য জানিয়েছে। মন্দিরটি ঝিকরগাছা উপজেলার হিন্দু সম্প্রদায়ের ঐতিহ্য বলে এলাকাবাসীর অভিমত পাওয়া গেছে।
এ ব্যাপারে জানতে চাইলে গদখালী সার্বজনীন কালী মন্দিরের সাধারন সম্পাদক সুভাষ ভক্ত বাবুল বলেন, ১২জানুয়ারী মঙ্গলবার থেকে ঐতিয্যবাহী গদখালী সার্বজনীন কালীমন্দিরে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ধর্মীয় ভাবগম্ভীর পরিবেশে পৌষকালী পূজা অনুষ্ঠিত হবে। তারই ধারাবাহিকতাই আগামী ৩দিন পর্যন্ত চলবে।

You must be Logged in to post comment.

ঠাকুরগাঁওয়ে হরিপুরে বিরল রোগে আক্রান্ত  তিন শিশু ।     |     বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবনে ২৭৬ টি রয়েল বেঙ্গল টাইগারের হদিস নেই!     |     গাংনীতে ঢেউটিন প্রদানের শ্লিপ বিতরণ অনুষ্ঠিত     |     সাতক্ষীরায় করোনার উপসর্গ নিয়ে ৫ জনের মৃত্যু, নতুন শনাক্ত ৬৫     |     নীলকরদের অত্যাচার নির্যাতনের কালের স্বাক্ষী ভাটপাড়া নীলকুঠি গাংনীর ভাটপাড়া নীলকুঠি এখন ডিসি ইকো পার্ক । পর্যটন-বিনোদন কেন্দ্র।     |     আটোয়ারীতে করোনায় মৃত ব্যক্তিদের দাফন বিষয়ে ধর্মীয় প্রতিনিধিদের প্রশিক্ষণ     |     ঠাকুরগাঁওয়ে রাইস ট্রান্সপ্লান্টারের মাধ্যমে ধানের চারা রোপণ কার্যক্রমের উদ্বোধন     |     প্রাকৃতিক পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় বনায়নের গুরুত্ব অপরিসীম -এমপি গোপাল     |     ফুলবাড়ীতে ওএমএমের চাল মুদি দোকানে এক হাজার টাকা জরিমানাসহ মুচলেকা     |     ঝিকরগাছায় সভাপতি করোনা আক্রান্ত হওয়ায় সুস্থতা কামনা করেছেন প্রধান শিক্ষক     |