ঢাকা, রবিবার, ২১শে এপ্রিল ২০২৪ ইং | ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ঠাকুরগাঁওয়ে গৃহবধূর মাথার চুল কেটে নেওয়ার ঘটনায় স্বামী ও সতীনসহ গ্রেফতার ৩

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি: যৌতুকের দাবি পূরণে ব্যর্থ হওয়ায় পাষন্ড স্বামী ও সতীন, রোজিনা বেগম নামে একজন নারীকে বেধরক মারপিট করে সমাজে কূলটা বানাতে মাথার চুল কেটে দিয়েছে। শুধু তাই নয়, লাঞ্চনার শিকার ওই নারী জ্ঞান হারিয়ে ফেললে তারা তাকে বাড়ির পাশের বাঁশ ঝাড়ে মৃত ভেবে ফেলে আসে। পরে খবর পেয়ে পুলিশ বাঁশঝাড় হতে ওই নারীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে ।

বৃহস্পতিবার (১০ আগস্ট ) এ ঘটনায় পুলিশ অভিযান চালিয়ে স্বামী, সতীন রুনা বেগম ও সতীনের ছেলে সহ ৩ জনকে আটক করে তাদের আদালতে সোপর্দ করে পুলিশ।

জানা যায়, ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার মধুপুর ডাঙ্গাপাড়া (কাকলী স্কুলের পশ্চিমে) গ্রামের আফসার আলীর ছেলে নূর আলম প্রথম স্ত্রী থাকা সত্ব্যেও ৩ বছর আগে রানীশংকৈল উপজেলার গোগর সরকারপাড়া গ্রামের আব্দুল হকের মেয়ে রোজিনা বেগমকে বিয়ে করে। বিয়ের বিষয়টি গোপন রাখতে তাকে নিয়ে ঠাকুরগাঁও শহরের ভাড়া বাসায় বসবাস করতে থাকে। এদিকে ব্যবসার টাকা লাটে উঠলে পূনরায় ব্যবসা চালু করার জন্য রোজিনার কাছে দেড় লক্ষ টাকা যৌতুক দাবি করে। কিন্তু রোজিনা যৌতুক আনতে না পারায় স্বামীর শত নির্যাতন সহ্য করতে থাকে।

মঙ্গলবার ( ৮ আগষ্ট ) রাতে নূর আলম রোজিনার ভাড়া বাসায় উঠে এবং যৌতুকের দেড় লক্ষ টাকার জন্য চাপ দেয়। বুধবার সকালে নূর আলম রোজিনার ঘরে ছিটকিনি দিয়ে তার মোবাইল ফোন নিয়ে গ্রামের বাড়ি মধুপুর গ্রামে চলে আসে। বিষয়টি টের পেয়ে রোজিনাও নূর আলমের গ্রামের বাসায় আসে। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে নূর আলম ও তার প্রথম পক্ষের স্ত্রী এবং ছেলে। এ নিয়ে কথাবার্তার এক পর্যায়ে নূর আলম মাথার চুল ধরে তাকে কাবু করে এবং তার প্রথম স্ত্রী রুনা বেগম ও তার ছেলে রোজিনাকে বেধরক মারপিট করে। রোজিনা যাতে পরবর্তীতে ওই বাড়িতে আসতে না পারে সেজন্য সমাজে কূলটা বানাতে তার মাথার চুল কাচি দিয়ে কেটে দেয় সতীন রুনা বেগম। তারপরও থামেনি তাদের নির্যাতন। এক পর্যায়ে রুনা বেগম জ্ঞান হারিয়ে ফেললে মৃত ভেবে তার লাশ গোপনের উদ্দেশ্যে বাড়ির পাশে বাঁশ ঝাড়ে ফেলে দেয় তারা।

এদিকে খবর পেয়ে রুহিয়া থানার উপ পরিদর্শক আবু হানিফ পুলিশ ফোর্স নিয়ে হাজির হয় এবং একটি বাঁশঝাড় হতে গৃহবধূ রোজিনাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। এ ঘটনায় গৃহবধূ রোজিনা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ১১(ক) ও (খ) ধারায় রুহিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আবু হানিফ তাৎক্ষনিকভাবে ঝটিকা অভিযান চালিয়ে রোজিনার স্বামী নূর আলম, সতীন রুনা বেগম ও সতীনের ছেলে সুজনকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে‌

রুহিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সোহেল রানা বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, গৃহবধূকে মারপিট করে মাথার চুল কেটে দিয়ে বাঁশঝাড়ে ফেলে রাখার ঘটনায় পুলিশ ঘটনাস্থল হতে গৃহবধূকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে । এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। নির্যাতনের সঙ্গে জড়িত ৩ আসামীকে গ্রেফতার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।

You must be Logged in to post comment.

আটোয়ারীতে শিক্ষক-কর্মচারী কো-অপারেটিভ ক্রেডিট ইউনিয়ন লিঃ এর সাধারণ সভা     |     আটোয়ারীতে বীর মুক্তিযোদ্ধা মির্জা আব্দুর রাজ্জাক এঁর লাশ রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন     |     ঝিকরগাছার পল্লীতে মেয়েকে খুঁজে না পেয়ে থানায় অভিযোগ     |     মাদারীপুরে ৮শ’ টাকায় বিক্রি হচ্ছে গরুর মাংস     |     ঠাকুরগাঁওয়ে নিখোঁজের ২ দিন পরে ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার     |     গাংনীা নওপাড়ায় তামাক ঘরে আগুন। বসতঘরসহ ৪ টি তামাক ঘর পুড়ে ছাই     |     মেহেরপুরে প্রধান মন্ত্রী প্রদত্ত আর্থিক অনুদানের চেক বিতরণ     |     বিরলে এক হোটেল ব্যবসায়ীর গোলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা।     |     ঝিকরগাছায় এসএসসি-৯৩ ব্যাচের বন্ধু আড্ডা ও মিলন মেলা অনুষ্ঠিত     |     গাংনীতে পুলিশের মাদক বিরোধী আভযানে ফেনসিডিল ও গাঁজাসহ ৫ মাদক ব্যবসায়ী আটক     |