ঢাকা, রবিবার, ২৫শে ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ইং | ১৩ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

ঠাকুরগাঁওয়ের মেয়ে তামান্না মিমির লেখা বই ‘বিকৃত মস্তিস্কের সেই আমি’

ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি : নূর-ই-তামান্না (মিমি); তিনি একজন তরুণ লেখিকা। মিডিয়া জগতে ‘তামান্না মিমি’ নামেই বেশ পরিচিত তিনি। তাঁর শৈশব কাল কেটেছে ঠাকুরগাঁও শহরের সুগার মিলস কোলনীতে। প্রত্যেক বছরের মত এবারও তাঁর লেখা একটি বই বের হয়েছে; সেটির নাম দেওয়া হয়েছে ‘বিকৃত মস্তিস্কের সেই আমি’। ঢাকার বইমেলার ১ম দিন থেকেই ‘বিকৃত মস্তিস্কের সেই আমি’ নামে এই বইটি ৪১৩ নম্বর স্টলে পাওয়া যাচ্ছে। বইটি প্রকাশ হয়েছে ‘পূর্বা প্রকাশনী’ থেকে। শুধু ঢাকাতে নয় ঠাকুরগাঁওয়ের বই মেলাতেও তামান্না মিমির বইটি পাওয়া যাবে। তামান্না মিমির আরেকটি পরিচয় রয়েছে; তিনি একজন ‘নাটক’ নির্মাতা; ইতোমধ্যে তাঁর লেখা কয়েকটি ‘গল্প’ প্রচারও হয়েছে টেলিভিশনে। খুব অল্প সময়ের মধ্যে তিনি মিডিয়া জগত দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছেন। তরুণ লেখিকা তামান্না মিমির সঙ্গে আলাপচারিতায় উঠে এসেছে তাঁর জীবনের গল্প। ছোট থেকেই তিনি সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত। ছোট থেকেই পরিবারের সদস্যদের কাছ থেকে পেয়েছেন উৎসাহ, সেই প্রেরণায় নানা সাংস্কৃতিক কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ করে পেয়েছেন বিভিন্ন পুরস্কারও। তরুণ লেখিকা তামান্না মিমি বলেন, নূর-ই-তামান্না মিমির বাড়ি ঠাকুরগাঁও শহরের গোবিন্দনগর এলাকায়। জন্ম ১৯৯১ সালের ২৮ মার্চ। বাবা মো: মতিউর রহমান একজন আদর্শবান শিক্ষক। তিনি মথুরাপুর হাই স্কুলে ইংরেজি বিষয়ে শিক্ষকতা করছেন। মা রাঞ্জুমান আরা বেগম; গৃহিনী। ছোট ভাই আশিকুর রহমান জিয়ন। ১ম শ্রেণি থেকে শুরু করে এসএসসি পর্যন্ত ঠাকুরগাঁও সুগার মিলস্ হাই স্কুলে লেখাপড়া করেছেন নূর-ই-তামান্না মিমি; ২০০৬ সালে এসএসসি পাশ করে ভর্তি হন ঠাকুরগাঁও সরকারি কলেজে। সেখানে ২০০৮ সালে এইচএসসি পাশ করার পর পাড়ি জমান ঢাকায়। ভর্তি হন ঢাকার ইডেন বিশ্ববিদ্যালয়ে। সেখান থেকে দর্শনে অনার্স-মাস্টার্স সম্পন্ন করেছেন তিনি। বর্তমানে তিনি আইডিয়াল ‘ল’ কলেজে আইনে অধ্যায়নরত রয়েছেন। তিনি বলেন, ২০১৩ সালে পারিবারিক ভাবে ঠাকুরগাঁও শহরেই তাঁর বিয়ে হয় প্রকৌশলী ওয়াসিম আকরামের সঙ্গে। বিয়ের পর তাঁর ঘরে জন্ম নেয় ফুটফুটে একটি ছেলে সন্তান। বই পড়তে তামান্না মিমির অনেক ভালো লাগে। ছোট থেকেই গল্প কিংবা উপন্যাসের প্রতি ছিল তাঁর বিশেষ দুর্বলতা। ছোট থেকেই পড়ালেখার পাশাপাশি তিনি ডুবে থাকতেন বইয়ের নেশায়। এখন পর্যন্ত কতগুলো বই প্রকাশ পেয়েছে এমন প্রশ্নের তরুণ লেখিকা তামান্না মিমি বলেন, এখন পর্যন্ত তাঁর লেখা ‘মৌলিক’, ‘যে পরীর ডানা নেই’ সহ বেশ কয়েকটি বই প্রকাশ হয়েছে। তার মধ্যে অন্যতম ছিল ‘মুখোশমানবী’। বই লিখার পাশাপাশি তিনি টেলিভিশনে বিভিন্ন নাটকের গল্পও লিখেন। মিডিয়া জগতে কবে এসেছেন এমন প্রশ্নের তামান্না মিমি বলেন, ২০১০ বাংলাদেশ টেলিভিশনে (বিটিভি) একটি নাটকে অভিনয়ের মধ্যে দিয়ে মিডিয়া জগতে পা রাখে তিনি। এরপর থেকে তিনি দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছে এই জগত। ইতোমধ্যে তিনি ১১টি নাটক, ৯টি শট ফিল্মের গল্প লিখেছেন। এরমধ্যে ৭টি গল্পের নাটক এনটিভি, আরটিভি সহ বেশ কয়েকটি প্রচার হয়েছে। আপনার লক্ষ্য কী এমন প্রশ্নে তিনি বলেন, আমার লক্ষ্য সৃজনশীল কাজ করে যাওয়া। লেখালিখি আমার পেশা না বলে নেশা বলায় উত্তম। এটি আমাকে মানসিক তৃপ্তি দেয়। যদিও খুব বেশি কিছু এখন পর্যন্ত লিখতে পারিনি, তবে সামনের দিনগুলোতে লেখার চেষ্টা থাকবে। ভবিষ্যতে নিজের জীবনবোধ নিয়ে যেসব অভিজ্ঞতা রয়েছে সেগুলোকে লেখায় রূপ দেয়ার ইচ্ছে আছে। কিন্তু কতটুকু পারা যায় তা জানি না।

You must be Logged in to post comment.

লালমনিরহাটে ট্রাকের চাকায় পিষ্ট হয়ে মাদ্রাসা ছাত্র নিহত     |     ২৪শ পিছ ট্যাপেন্ডাডল ট্যাবলেটসহ ২ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার     |     গাংনীতে অবৈধভাবে নদীর মাটি কেটে বিক্রি। প্রশাসনকে অবহিত করার পরও নেয়া হয়নি ব্যবস্থা     |     পার্বতীপুরে ট্রেন লাইনচ্যুতির  ৯ ঘন্টা পর উত্তরবঙ্গে ট্রেন চলাচল স্বাভাবিক      |     রংপুর বিভাগীয় প্রাক-বাজেট আলোচনা সভা অনু‌ষ্ঠিত     |     মেহেরপুরে মাদকসহ পাঁচারকারি গ্রেফতার : র‌্যাবের ব্রিফিং     |     জমকালো আয়োজনের মধ্যদিয়ে অনুষ্ঠিত হলো  ঢাকায় অবস্থিত ফুলবাড়ীবাসির মিলনমেলা      |     ঝিকরগাছা থানার দু’এএসআইসহ এক কনস্টেবলের বিদায় সংবর্ধনা     |     ঝিকরগাছায় পেন ফাউন্ডেশনের উদ্যোগে কিশোরীদের উঠান বৈঠক অনুষ্ঠিত     |     স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণ করতে চাই: এমপি শিমুল     |