ঢাকা, রবিবার, ২৭শে নভেম্বর ২০২২ ইং | ১৩ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

ফসলের সঙ্গে শত্রুতা

পঞ্চগড় প্রতিনিধি:পঞ্চগড়ের বোদায় শত্রুতা করে আবুল কাশেম নামে এক বর্গা চাষীর এক একর জমির ১৫ হাজার বাঁধা কপির গাছ কেটে ফেলেছে দুর্বৃত্তরা। এতে দিশেহারা হয়ে পড়েছেন ওই চাষী। মঙ্গলবার রাতে বোদা উপজেলার চন্দনবাড়ি ইউনিয়নের লাঠুয়াপাড়া এলাকার মাঠে এ ঘটনা ঘটে। মানুষের প্রতি শত্রুতা করে ফসলের ক্ষেত কেটে ফেলার ঘটনায় ক্ষোভ জানিয়েছেন স্থানীয় কৃষকসহ জনপ্রতিনিধিরা। এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার, কৃষি বিভাগসহ সংশ্লিষ্ট দপ্তরে লিখিত অভিযোগ করেছেন ক্ষতিগ্রস্থ চাষী।
ক্ষতিগ্রস্ত চাষী আবুল কাশেম বলেন, কয়েক বছর ধরে বর্গা নিয়ে এক একর জমিতে বাঁধা কপির চাষ করে আসছেন। মাথার ঘাম পায়ে ফেলে কঠোর পরিশ্রম করে বাঁধা কপির গাছ বড় করেছেন। বুধবার সকালে ক্ষেতে গিয়ে দেখি কে বা কারা বাঁধা কপির গাছগুলো কেটে দিয়েছে। চারা, সার কীটনাশকসহ বাঁধা কপির চাষাবাদ করতে প্রায় লাখ দুয়েক টাকা ব্যয় হয়েছে। পুরো ক্ষেতের গাছ কেটে ফেলেছে। আমার স্বপ্ন নষ্ট করেছে দুর্বৃত্তরা। আশা ছিল এ বছর ক্ষেত থেকে ৭/৮ লাখ টাকার বাঁধা কপি বিক্রি করব। কিন্তু আমার সব শেষ হয়ে গেছে। কীভাবে আমার দেনা পরিশোধ করব এ নিয়ে চিন্তিত। যারা আমার সঙ্গে শত্রুতা করে ফসলের গাছ কেটে দিয়েছে তাদের বিচার ও ক্ষতিপুরণ চান ক্ষতিগ্রস্থ ওই চাষী।
জমির মালিক আজহারুল ইসলাম রুবেল বলেন, আবুল কাশেম আমার জমি বর্গা নিয়ে চাষাবাদ করে। প্রতিবছরের ন্যায় এবারও বাঁধা কপি চাষ করেছে। রাতের অন্ধকারে দুবৃত্তরা ১৫ হাজার গাছ কেটে দিয়েছে। মানুষের সঙ্গে শত্রুুতা থাকতে পারে তাই বলে ফসলের ক্ষেত কেটে ফেলবে এটা মেনে নেয়া যায় না।
চন্দনবাড়ি ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. নজরুল ইসলাম বলেন, আমি ক্ষতিগ্রস্থ চাষীর ক্ষেত পরিদর্শন করেছি। যারা এ ঘটনা ঘটিয়েছে তারা নির্মম ও বর্বরতার কাজ করেছে। বিষয়টি কৃষি কর্মকর্তাসহ আইনশৃংঙ্খলা বাহিনীকে অবহিত করেছি।
বোদা উপজেলা বৃষি কর্মকর্তা আল মামুন অর রশিদ বলেন, আমি ক্ষতিগ্রস্থ ক্ষেত পরিদর্শন করেছি। পূর্ব শক্রুতার জের ধরে এমনটি ঘটেছে। এটি একটি ফৌজদারী অপরাধ। আমরা বিষয়টির তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দাখিল করবো।
বোদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো.সোলেমান আলী অভিযোগ প্রাপ্তির সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, আমি বিষয়টি তদন্ত পূর্বক প্রতিবেদন দাখিলের জন্য কৃষি কর্মকর্তাকে বলেছি। পুলিশকেও ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেছি। ক্ষতিগ্রস্থ চাষীকে প্রণোদনাসহ আপদকালীন সহায়তা প্রদানের ব্যবস্থা নেবো।

You must be Logged in to post comment.

দেরীতে হলেও ৮৭ লাখ টাকা ব্যয়ে ঐতিহাসিক মুজিবনগর আম্রকানন পরিচর্যার উদ্যোগ প্রশংসনীয়     |     ফুলবাড়ীতে বিনামুল্যে আইন সহায়তা পেতে লিগ্যাল এইড কমিটির উদ্বুদ্ধকরণ বিষয়ক সমন্বয় সভা।     |     নবাবগঞ্জে মানবতার কল্যাণে মানবিক দেওয়ালের যাত্রা শুরু     |     এক গৃহবধু’র লাশ রেলষ্টেশনের সীমানা রেলিং-এ ঝুলছিল, নানা গুঞ্জন, হত্যা না আত্মহত্যা!     |     মেহেরপুরের গাংনীতে বিদ্যুৎ স্পৃষ্টে অটোভ্যান চালকের মৃত্যু     |     নিখোঁজের দুইদিন পর নদীর পাড়ে মিলল গৃহবধুর মরদেহ     |     বিয়ে বাড়িতে দাওয়াত খাওয়াকে কেন্দ্র করে ডাসারে দু’পক্ষের মাঝে সংঘর্ষ \ মহিলাসহ আহত-২৫     |     টাঙ্গাইলে বারোমাসী মহৌষধী ‘ননী ফল’ বাণিজ্যিকভাবে চাষ হচ্ছে     |     আগামী মাসেই ব্যাংকগুলোর ডলার সংকট দূর হবে। –এফ সালমান রহমান     |     টাঙ্গাইলে প্রাণবন্ত বিশ্বকাপ ফুটবল     |