ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৫শে জানুয়ারি ২০২২ ইং | ১২ই মাঘ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ

বগুড়ার শেরপুরে মহাধুমধামে দুই বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধীর বিয়ে সম্পন্ন!

বাদশা আলম শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি: ৫০তম আন্তর্জাতিক ও ২৩তম জাতীয় প্রতিবন্ধী দিবস উপলক্ষে ০৩ ডিসেম্বর শুক্রবার বিকেলে শেরপুর সার্বিক উন্নয়ন সংস্থা পরিচালিত কাদের সুফিয়া অটিস্টিক ও প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের উদ্যোগে এক বিয়ের আয়োজন করা হয়। গ্রাম-বাংলার রীতি অনুযায়ী আর দশটা বিয়ের মতোই উভয় পরিবারের সম্মতিতে দুই প্রতিবন্ধীর বিয়ে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সম্পূর্ণ যৌতুকবিহীন এই বিয়েতে উৎসবে মেতে ওঠেন নানা শ্রেণি পেশার প্রায় তিন শতাধিক মানুষ। ব্যতিক্রমী এই বিয়ে অনেকেরই নজর কেড়েছে। বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী মনিরুজ্জামান (২৫) বরের সাজে মাথায় টুপি পরে শতাধিক বরযাত্রী নিয়ে পৌরশহরের ঘোষপাড়া এলাকায় অবস্থিত ওই বিদ্যালয় প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠানস্থলে পৌঁছান। যেখানে স্থাপিত অস্থায়ী সংবর্ধনা মঞ্চে আগে থেকেই মাথায় টিকলি পরে কনের সাজে বসেছিলেন বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী রহিমা খাতুন (২২)। বরকে গ্রহণ শেষে নির্ধারিত স্থানে নিয়ে যাওয়া হয়। সেইসঙ্গে যথাযথ সম্মানের সঙ্গে অতিথিদের আপ্যায়ন করা হয়। তারপর সব আনুষ্ঠানিকতা শেষ করে ওই দুই বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধীর বিয়ে সম্পন্ন হয়। ৭০ হাজার টাকা দেনমোহর ধার্য করে এই বিয়েটি সম্পন্ন হয় । পরে সন্ধ্যা ৬টার দিকে কনেকে সঙ্গে নিয়ে বর তার নিজ বাড়িতে ফিরে যান। বগুড়া জেলার শাজাহানপুর উপজেলার নগর পলীপালাশ গ্রামের আব্দুর রউফ এর ছেলে মনিরুজ্জামান জন্ম থেকেই বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী। তিনি বর্তমানে স্থানীয় মহিপুর সরকারী দুগ্ধ ও প্রাণি উন্নয়ন খামারে চাকরি করেন। এদিকে কনে রহিমা খাতুন শেরপুর পৌরশহরের গোসাইপাড়া এলাকার শাহজাহান আলীর মেয়ে। বাড়ীর পাশেই অবস্থিত প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ছিলেন তিনি। লেখাপড়ার পাশাপাশি দর্জির কাজও শিখেছেন এই প্রতিবন্ধী। তিনিও জন্ম থেকেই বাক ও শ্রবণ প্রতিবন্ধী।

বিবাহত্তোর সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ময়নুল ইসলাম, শেরপুর পৌরসভার মেয়র আলহাজ্ব জানে আলম খোকা, শেরপুর সার্বিক উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি সাংবাদিক আলহাজ্ব মুনসী সাইফুল বারী ডাবলু, কাদের সুফিয়া অটিস্টিক ও প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ে প্রতিষ্ঠাতা উম্মে সুফিয়া বিউটি, উপজেলা প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক দৈনিক আমাদের সময় পত্রিকার শেরপুর প্রতিনিধি শফিকুল ইসলাম শরীফ, আনন্দ টিভির বগুড়া জেলা প্রতিনিধি বাঁধন কর্মকার কৃষ্ণ প্রমুখ।

শেরপুর সার্বিক উন্নয়ন সংস্থার সভাপতি আলহাজ্ব মুনসী সাইফুল বারী ডাবলু জানান, সম্পূর্ণ যৌতুকবিহীনভাবে এই দুই প্রতিবন্ধীর বিয়ে হয়েছে। বরযাত্রী ও অতিথিদের আপ্যায়নসহ বিয়ের সব খরচ তার সংগঠনটির পক্ষ থেকেই করা হয়। এছাড়া ওই দম্পতির নতুন সংসারের যাবতীয় আসবাবপত্র দেওয়া হয়েছে।
এবিষয়ে কাদের সুফিয়া অটিস্টিক ও প্রতিবন্ধী বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা আমেরিকা প্রবাসী উম্মে সুফিয়া বিউটি বলেন, এই বিয়েতে আমি নিজে ৭০ হাজার টাকা খরচ করেছি এবং এই ধরনের অনুষ্ঠান আয়োজন করতে পেরে খুব গর্ববোধ করছি।

এব্যপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ময়নুল ইসলাম বলেন, প্রতিবন্ধীদের সমাজে বোঝা হিসেবে দেখা হয়। কিন্তু আসলে তারা বোঝা নয়। তাদেরকে ঠিকভাবে গড়ে তুলতে পারলে তারাও আমাদের সম্পদ হয়ে ওঠে। প্রতিবন্ধীরাই এভাবে একে অপরের প্রতি যদি হাত বাড়িয়ে দেয় তাহলে আমাদের সমাজের মানুষের দৃষ্টিভঙ্গির পরিবর্তন ঘটবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

You must be Logged in to post comment.

পলাশবাড়ী থানার সার্বিক আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নতি কল্পে বিশেষ অবদান রাখায়  অফিসার ইনচার্জ মাসুদ রানাকে সম্মাননা স্মারক প্রদান      |     রাণীশংকৈলে বীর মুক্তিযোদ্ধার রাষ্ট্রীয় মর্যাদায় দাফন সম্পন্ন     |     মেহেরপুরে গাঁজা ও বিস্ফোরক দ্রব্য উদ্ধার,আটক-১     |     মাদারীপুরে হত্যা মামলায় ৫ জনের মৃত্যুদন্ড     |     ঠাকুরগাঁওয়ে হরিপুরে খাদ্য কর্মকর্তার বিরুদ্ধে প্রতারণার মাধ্যমে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ ।     |     পার্বতীপুরে রেলওয়ের অবৈধ উচ্ছেদ অভিযান ,সাংবাদিক আট     |     শেষ মুহূর্তে প্রচার প্রচারণায় ব্যস্ত রাজৈর উপজেলা নির্বাচনের প্রার্থীরা, দিচ্ছেন পাল্টাপাল্টি অভিযোগ     |     ঝিকরগাছায় সংবাদকর্মীর উপর হামলা ও মটরসাইকেল ভাংচুর : থানায় অভিযোগ     |     ঝিকরগাছায় ভ্রাম্যমান আদালতে ৩জনকে জরিমানা     |     মেহেরপুরের বোরো ধান রোপনে ব্যস্ত সময় পার করছে কৃষকরা     |