ঢাকা, শুক্রবার, ৯ই ডিসেম্বর ২০২২ ইং | ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

মেহেরপুর জেলা পরিষদ নির্বাচন-২০২২ সম্পন্ন এখানে হেরেছে প্রার্থীরা -জিতেছে টাকা

আমিরুল ইসলাম অল্ডাম মেহেরপুর জেলা প্রতিনিধি : মেহেরপুর জেলা পরিষদ নির্বাচন-২০২২ ইতোমধ্যে সম্পন্ন হয়েছে। মেহেরপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে জেলার মেহেরপুর সদর, মুজিবনগর ও গাংনী উপজেলা পর্যায়ে ৩ টি ভোট কেন্দ্রের বেসরকারী ফলাফলে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের দলীয় মনোনিত প্রার্থী এ্যাড. আব্দুস সালাম (কাপ পিরিচ প্রতীকে) জয়লাভ করলেও চেয়ারম্যানসহ অনেকেই হেরেছেন। ভোট শেষে স্থানীয় নির্বাচন পর্যবেক্ষকরা এবং স্থানীয় নেতৃবৃন্দ যোগ বিয়োগ , ভোটের জরীপ নিয়ে আলাপ আলোচনা-সমালোচনা শেষে একটি উপসংহারে উপনীত হয়ে বলতে শোনা গেছে এবার মেহেরপুর জেলা পরিষদ নির্বাচনে হেরেছে প্রার্থীরা জিতেছে টাকা। ল্ক্ষ টাকা না এখানে কোটি টাকার লেনদেন হয়েছে বলে বিশ্বস্তসূত্রে জানা গেছে। এদের মধ্যে বেশী টাকা যারা ভোটারদের দিতে পেরেছে তারাই জয়লাভ করেছে। পক্ষান্তরে যারা কম টাকা দিয়েছিল তাদেরকে ভোটাররা ভোট দেয়নি।জানা গেছে, প্রার্থীরা ভোটযুদ্ধে নিজেদের জয়যুক্ত করতে ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে ভোটার প্রতি ১ লাখ টাকা থেকে দেড় লাখ টাকা পর্যন্ত উৎকোচ প্রদান করেছেন। ফলাফল শেষে যে সব চেয়ারম্যান এবং সদস্য প্রার্থীরা পরাজিত হয়েছে তারা এখন মাইক্রোযোগে বাড়ি বাড়ি গিয়ে টাকা ফেরত চাওয়া শুরু করেছেন। জেলা পরিষদ নির্বাচনে ৩ নংওয়ার্ড গাংনী উপজেলা থেকে সদস্য প্রার্থী মজিরুল ইসলাম (অটো রিক্সা ) ও হাফিজুর রহমান মখলেছ (তালা) প্রতীকের প্রার্থীরা পরাজিত হয়ে জনপ্রতিনিধি ভোটারদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে টাকা ফেরত চেয়েছেন বলে চেয়ারম্যান মেম্বররা জানিয়েছেন। টাকা ফেরত না দিলে দেখে নেয়াসহ নানারকম হুমকিও দেখানো হচ্ছে । এমনও শোনা গেছে, পরাজিত দুজন একই মাইক্রোযোগে চেয়ারম্যান মেম্বরদের বাড়িতে সরাসরি গিয়ে টাকা ফেরত চেয়েছেন। বিশ্বস্তসূত্রে আরও জানা গেছে, বিজয়ী প্রার্থী মিজানুর রহমান ভোটারদের আগের রাতে বাড়ি বাড়ি গিয়ে সর্বোচ্চ ৬৩জনকে দেড় লাখ করে টাকা উৎকোচ দিয়েছে এবং ওয়াদা করিয়ে নিয়েছে। পাশাপাশি মজিরুল ইসলাম ও মখলেছ ৮০ জনের মাঝে ১ লাখ টাকা করে উৎকোচ প্রদান করেছিলেন।
টাকা লেন দেনের ব্যাপারে বিজ্ঞ জনেরা জানান, সেসব প্রার্থীরা ভোট যুদ্ধে নেমে বাড়ি বাড়ি গিয়ে টাকার বিনিময়ে ভোট ভিক্ষা করেছে।রাতের আঁধারে টাকা দিয়েছে । ভোটে যারা পরাজিত হয়েছেন তাদের টাকা ফেরত না দেয়ায় ভালো। তারা জানিয়েছিলেন আমরা কাউকে টাকা পয়সা দিয়নি। ভোট শেষে এখন দাবি করছেন যে, আমরা ১ লাখ করে টাকা দিয়েছিলাম।
উল্লেখ্য, মেহেরপুর সদর উপজেলায় সাধারন সদস্য পদে বিজয়ী হয়েছেন আজিমুল বারী মুকুল, ২ নং ওয়ার্ড মুজিবনগর উপজেলায় সদস্য পদে বিজয়ী হয়েছেন ইমতিয়াজ হোসেন মিরন এবং ৩ নং ওয়ার্ড গাংনী উপজেলা থেকে সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন মিজানুর রহমান ।
এছাড়া সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে ১ নং ওয়ার্ড মেহেরপুর সদর ও মুজিনগর থেকে নির্বাচিত হয়েছেন শামীমআরা বিশ্বাস হিরা ও ২ নং গাংনী উপজেলা আসন
থেকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন জেলা পরিষদের সাবেক সদস্য শাহানা ইসলাম শান্তনা।
পরিষদ ভোট কেন্দ্রে ২ জন চেয়ারম্যান প্রার্থী ও ১১ জন সাধারন সদস্য প্রার্থী ছিলেন। সংরক্ষিত মহিলা সদস্য পদে প্রতিদ্বন্দিতা করেছেন ৫ জন । এদের মধ্যে একজন বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

You must be Logged in to post comment.

মির্জা ফখরুলকে আটকের প্রতিবাদে ঠাকুরগাঁওয়ে বিক্ষোভ      |     বোদায় শীতার্তদের মাঝে কম্বল বিতরণ     |     লালমনিরহাটে বিএনপির বিক্ষোভ মিছিল     |     চিলাহাটিতে আওয়ামী লীগের জন্য  পুনরায় ফিরে পেলো টিসিবির পণ্য সুবিধাভোগীরা।      |     লালমনিরহাটে নবাগত জেলা প্রশাসকের মতবিনিময় সভা     |     ফিজু স্মৃতি গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্নামেন্টের উদ্বোধন     |     ফুলবাড়ীতে দুই দলের সমর্থকদের প্রীতি ফুটবল ম্যাচ,বিজয়ী আর্জেন্টিনা।     |     গাংনীতে নাশকতা মামলার সন্দেহভাজন আসামী যুবদল নেতা জাহিদ আটক     |     বীরগঞ্জে প্রতিবন্ধীদের মাঝে হুইলচেয়ার বিতরণ     |     টাঙ্গাইলের এলেঙ্গায় জিমে’র আড়ালে মাদক ব্যবসা ; ৩০ লাখ টাকার হিরোইনসহ নারী আটক     |